বাংলাদেশের অন্যতম জনপ্রিয় ভ্রমণ স্থান সেন্টমার্টিন। প্রতি বছর অনেকেই ঘুরতে যান এই প্রবাল দ্বীপে। পর্যটকদের চাহিদা মিটাতে এখানে গড়ে উঠেছে নানা মানের হোটেল ও রিসোর্ট। রাত্রিযাপনের জন্যে কোন হোটেল বা রিসোর্ট ভালো হবে এই নিয়ে জিজ্ঞাসা অনেকের। আজ আমরা জনপ্রিয় কিছু হোটেল ও রিসোর্টের তথ্য জানাবো। আমরা চেষ্টা করেছি লাক্সারিয়াস হোটেল যেমন রাখতে তেমনি কম খরচে থাকার মত হোটেল রিসোর্ট আপনাদের সামনে পরিচিত করে দিতে।

হোটেল রিসোর্ট বুকিং নিয়ে কিছু কথা : সেন্টমার্টিনে হোটেল বা রিসোর্ট বুকিং দেওয়ার আগে তার অবস্থান, দূরত্ব, রেস্টুরেন্ট, নিরাপত্তা ও অন্যান্য সুবিধা অসুবিধা ইত্যাদি দেখে নেওয়া ভালো। রুম ভাড়ার ক্ষেত্রে ভালভাবে দরদাম করে নিবেন। আর নিম্নোক্ত হোটেল ও রিসোর্টের যে ভাড়া তা সিজন ও অফিসিজনের উপর নির্ভর করে পরিবর্তন হয়। সিজনে (নভেম্বর-মার্চ) ছুটির দিনে পর্যটকের চাপ স্বাভাবিক ভাবেই বেশি থাকে। তখন রিসোর্ট গুলোর ভাড়া অস্বাভাবিক ভাবেই বেশি থাকে। তাই সবসময় ভাল করে যাচাই করে রুম বুকিং করা উচিত। আর অগ্রিম বুকিং করতে চাইলে অবশ্যই আর্থিক লেনদেনের আগে নিজে যাচাই করার অনুরোধ রইলো।

সেন্টোমার্টিন ভ্রমণ গাইড পড়ুন এইখানে

সেন্টমার্টিন রিসোর্ট ও হোটেল লিস্ট

ব্লু মেরিন রিসোর্ট (Blue Marine Resort) : সেন্টমার্টিন দ্বীপের ফেরি ঘাটের খুব কাছেই ব্লু মেরিন রিসোর্টের অবস্থান। ব্ল–মেরিন রিসোর্টের এসিযুক্ত ডাবল বেডরুমের ভাড়া ১৫০০০ টাকা এবং নন-এসি ৫০০০ টাকা, ট্রিপল রেডরুমের প্রতিটির ভাড়া ৩০০০ টাকা, ছয়জনের বেডরুমের ভাড়া ৪০০০ টাকা এবং দশজনের বেডরুমের ভাড়া ৫০০০ টাকা। যোগাযোগঃ 01817 060065

কোরাল ভিউ রিসোর্ট (Coral View Resort) : সেন্টমার্টিন জাহাজ ঘাটের বাম পাশে অর্থাৎ পূর্ব বীচ সংলগ্ন কোরাল ভিউ রিসোর্টটি গড়ে তোলা হয়েছে। কোরাল ভিউ রিসোর্টে সি ভিউ রুমের ভাড়া ২৫০০ থেকে ৬০০০ টাকা। যোগাযোগঃ 01980 004777, 01980 004778

প্রাসাদ প্যারাডাইস রিসোর্ট (Praasad Paradise Resort) : সেন্টমার্টিন বাজারের ভেতর দিয়ে ব্লু মেরিন রিসোর্ট পার হয়ে আরো কিছুটা উত্তর দিকে এগিয়ে গেলে সুদৃশ্য প্রাসাদ প্যারাডাইস। বিভিন্ন ধরনের ১৬টি রুমের যেকোন একটি ভাড়া নিতে খরচ করতে হবে ২০০০-৫০০০ টাকা। যোগাযোগঃ 01995 539248, 01883 626003

নীল দিগন্তে রিসোর্ট (Neel Digante Resort) : সেন্টমার্টিন দ্বীপের দক্ষিণ বীচের কোণাপাড়ায় অবস্থিত নীল দিগন্তে রিসোর্টটি জেটি থেকে বেশখানিকটা দূরে অবস্থিত। নীল দিগন্তে রিসোর্টের নানা ধরণের কটেজ টাইপ রুমে থাকতে খরচ হবে ১৫০০-৫০০০টাকা। যোগাযোগঃ 0173 005 1004

লাবিবা বিলাস রিসোর্ট (Labiba Bilas Resort) : পশ্চিম বীচে অবস্থিত লাবিবা বিলাস (বর্তমানে দ্যা আটলান্টিক নামে পরিচিত) রিসোর্টে রাত্রি যাপনের জন্য ৪৩ টি কক্ষ রয়েছে। আর এখানে থাকতে আপনাকে খরচ করতে হবে ৩৫০০ টাকা থেকে ১২০০০ টাকা পর্যন্ত। যোগাযোগঃ 01700 969 212, 01834 267 922

প্রিন্স হেভেন রিসোর্ট (Prince Heaven Resort) :
উত্তর বিচে অবস্থিত প্রাসাদ প্যারাডাইস সংলগ্ন প্রিন্স হেভেন রিসোর্টে মোট ২৪ টি কক্ষ এবং একটি রেস্টুরেন্ট রয়েছে। প্রিন্স হেভেন রিসোর্টের রুম ভাড়ার পরিমাণ ১,৫০০-৩,৫০০ টাকা। যোগাযোগঃ 01995 539 246, 01883 626 002

ড্রিম নাইট রিসোর্ট (Dream Night Resort) : পশ্চিম বীচের শেষ প্রান্তে অবস্থিত ড্রিম নাইট রিসোর্টের প্রতি কক্ষে ২ থেকে ৪ জনের রাত্রিযাপনের সুযোগ। এই রিসোর্টে থাকতে হলে আপনাকে খরচ করতে হবে ১৫০০ থেকে ৩৫০০ টাকা পর্যন্ত। যোগাযোগঃ 01825 656326, 01730 235002

সায়রী ইকো রিসোর্ট (Sayari Eco Resort) : দক্ষিণ বীচে নজরুল পাড়ায় অবস্থিত সায়রী ইকো রিসোর্ট নান্দ্যনিকতা অনন্য। সায়রী ইকো রিসোর্টের বিভিন্ন ক্যাটাগরির ১৮ টি রুমে ১৫০০ থেকে ৩০০০ টাকায় রাত্রিযাপনের সুযোগ রয়েছে। যোগাযোগঃ 01610 555500

সমুদ্র কুটির রিসোর্ট (Somudra Kutir Resort) : সেন্টমার্টিনের দক্ষিণ বীচের কোণাপাড়ায় সমুদ্র কুটির রিসোর্টটি অবস্থিত। এই রিসোর্টে রাত্রিযাপনের জন্য ২০০০ টাকা থেকে ৩৫০০ টাকা খরচ করতে হবে। যোগাযোগঃ 01858 222521

ব্লু লেগুন রিসোর্ট (Blue Lagoon Resort) : সেন্টমার্টিন দ্বীপের দক্ষিণ পশ্চিম কোণে অবস্থিত ব্লু লেগুন রিসোর্টের প্রতিটি কক্ষে ২ থেকে ৪ জন থাকার ব্যবস্থা রয়েছে। ব্লু লেগুন রিসোর্টের প্রতি দিনের জন্য ভাড়া গুনতে হবে ১৫০০ থেকে ৩৫০০ টাকা। যোগাযোগঃ 01815 012306, 01755 028993

পান্না রিসোর্ট (Panna Resort) : পশ্চিম বীচে অবস্থিত পান্না রিসোর্টটি কম খরচে সাগর লাগোয়া পরিচ্ছন্ন রিসোর্টগুলোর মধ্যে অন্যতম। পান্না রিসোর্টে প্রতি রাতের জন্য রুম ভাড়া ১৫০০ টাকা থেকে ৩৫০০ টাকা। যোগাযোগঃ ০১৭৬৫ ১৫২৫৬৫

সি টি বি রিসোর্ট (CTB Resort) : পশ্চিম বীচে অবস্থিত সি টি বি রিসোর্টে রাত্রিযাপনের জন্য রুম ভাড়া লাগবে ১৫০০ টাকা থেকে ৩০০০ টাকা পর্যন্ত।যোগাযোগঃ 01701 741440

সী প্রবাল রিসোর্ট (Sea Probal Resort) : উত্তর-পশ্চিম বিচ, যোগাযোগ: 01817 609829, 01756 208383

লাইটহাউজ রিসোর্ট (Lighthouse Resort) : দক্ষিণ পশ্চিম বিচ, যোগাযোগ: 01884-046480

মিউজিক ইকো রিসোর্ট (Music Eco Resort) : দক্ষিণ পশ্চিম বিচ, যোগাযোগ: 01713-339695

সীমানা পেরিয়ে রিসোর্ট (Shimana Periye Resort) : পশ্চিম বীচ, যোগাযোগ: 01911-121292

সেন্ট মার্টিন রিসোর্ট : অবকাশ পর্যটন লিমিটেড এর রিসোর্ট। পশ্চিম বিচে অবস্থিত কয়েক ধরণের রুম প্রতি ভাড়া ১৫০০-৩৫০০ টাকা। যোগাযোগ : ০১৭১৬৭৮৯৬৩৪

সী ভিউ রিসোর্ট : নিজস্ব রেস্টুরেন্টসহ ১৬টি রুম ও ৪টি তাবু রয়েছে। অধিকাংশ রুম থেকে সমুদ্র দেখা যায়। রুমের ভাড়া ১,২০০-৩,০০০ টাকা। যোগাযোগ: ০১৮৪০৪৭৭৭০৭ (ঢাকা), ০১৮৪০৪৭৭৯৫৬ (সেন্টমার্টিন)

সী ইন : সেন্টমার্টিন বাজারের কাছে এর অবস্থান। ২৬টি কক্ষের এই হোটেলে প্রতি রুমের ভাড়া ২,০০০-৩,৫০০ টাকা। এখান থেকে সমুদ্র দেখার কোনো উপায় নেই। যোগাযোগ: ০১৭২২১০৯৬৭০, ০১৭৩৫৫৮১২৫১, ০১৭৭৫০১১২০৮।

ডায়মন্ড সি রিসোর্ট : পশ্চিম বীচ, ভাড়া ১২০০-২৫০০, যোগাযোগ: ০১৭৫৩৮১৭৪৪৯

হোটেল স্যান্ড শোর : বাজার এলাকা, ভাড়া ১২০০-২৫০০

হোটেল সী ফাইন্ড : পশ্চিম বীচ, ভাড়া ২০০০-৪০০০, যোগাযোগ: ০১৬২৬১৮২৭২৫

ফরহাদ রিসোর্ট : পশ্চিম বীচ, ভাড়া ১২০০-২৫০০, যোগাযোগ: ০১৯১২৭৬০০১০

কিংসুক ইকো রিসোর্ট : গলাচিপা, ভাড়া ১৫০০-৩০০০, যোগাযোগ : ০১৭১১২৪৪৪১২,০১৮১৫৬৪৮৭৩১

লাইট হাউজ রিসোর্ট : পশ্চিম বীচ, ভাড়া ১৫০০-৩০০০, যোগাযোগ :০১৮১৯০৩৬৩৬৩

সমুদ্র কানন : পশ্চিম বীচ, নেভী রোড়। ভাড়া ১২০০-২৫০০, যোগাযোগ : ০১৭১৩৪৮৬৮৬৬

কম খরচে থাকতে চাইলে

কোন সময় যাচ্ছেন তার উপর নির্ভর করে খরচ কমাতে পারবেন। যদি অফসিজনে যান তাহলে হোটেল বা রিসোর্ট ভাড়ায় অনেক ডিসকাউন্ট পাবেন। আবার সিজনে (নভেম্বর-মার্চ) গেলে যদি সাপ্তাহিক ছুটির দিন বা সরকারি কোন বন্ধের দিন ছাড়া যান তাহলেও হোটেল ও রিসোর্ট ভাড়া নিতে তুলনামূলক কম খরচ হবে। এছাড়া বীচ থেকে একটু ভিতরের দিকে গিয়ে খুঁজলে কিছু কম খরচে থাকতে পারবেন। একসাথে কয়েকজন বন্ধু মিলে গেলে ডাবল/ট্রিপল বেডের রুম নিয়ে শেয়ার করে থেকেও খরচ অনেক কমাতে পারবেন।

শেয়ার করুন সবার সাথে

ভ্রমণ গাইড টিম সব সময় চেষ্টা করছে আপনাদের কাছে হালনাগাদ তথ্য উপস্থাপন করতে। যদি কোন তথ্যগত ভুল কিংবা স্থান সম্পর্কে আপনার কোন পরামর্শ থাকে মন্তব্যের ঘরে জানান অথবা আমাদের সাথে যোগাযোগ পাতায় যোগাযোগ করুন।
দৃষ্টি আকর্ষণ : যে কোন পর্যটন স্থান আমাদের সম্পদ, আমাদের দেশের সম্পদ। এইসব স্থানের প্রাকৃতিক কিংবা সৌন্দর্য্যের জন্যে ক্ষতিকর এমন কিছু করা থেকে বিরত থাকুন, অন্যদেরকেও উৎসাহিত করুন। দেশ আমাদের, দেশের সকল কিছুর প্রতি যত্নবান হবার দায়িত্বও আমাদের।
সতর্কতাঃ হোটেল, রিসোর্ট, যানবাহন ভাড়া ও অন্যান্য খরচ সময়ের সাথে পরিবর্তন হয় তাই ভ্রমণ গাইডে প্রকাশিত তথ্য বর্তমানের সাথে মিল না থাকতে পারে। তাই অনুগ্রহ করে আপনি কোথায় ভ্রমণে যাওয়ার আগে বর্তমান ভাড়া ও খরচের তথ্য জেনে পরিকল্পনা করবেন। এছাড়া আপনাদের সুবিধার জন্যে বিভিন্ন মাধ্যম থেকে হোটেল, রিসোর্ট, যানবাহন ও নানা রকম যোগাযোগ এর মোবাইল নাম্বার দেওয়া হয়। এসব নাম্বারে কোনরূপ আর্থিক লেনদেনের আগে যাচাই করার অনুরোধ করা হলো। কোন আর্থিক ক্ষতি বা কোন প্রকার সমস্যা হলে তার জন্যে ভ্রমণ গাইড দায়ী থাকবে না।