নাগরিক জীবনের ব্যস্ততা থেকে একটু হাফ ছেড়ে বাঁচতে অনেকেই প্রকৃতির সান্নিধ্যে সময় কাটাতে ব্যকুল হয়ে উঠেন। ভ্রমনপিয়াসী সেইসব মানুষের সময় এবং চাহিদার কথা মাথায় রেখেই ঢাকা থেকে মাত্র ৫০ কিলোমিটার দূরে মুন্সিগঞ্জ জেলার লৌহজং উপজেলায় পদ্মা নদীর পাড়ে গড়ে তোলা হয়েছে নয়নাভিরাম পদ্মা রিসোর্ট (Padma Resort)। সাপ্তাহিক ছুটির দিন কিংবা কোন বিশেষ দিনে ধরাবাঁধা রুটিনের বাইরে এসে গ্রামীণ পরিবেশে একটি দিন কাটানো নিঃসন্দেহে আপনাকে আগামী কিছুদিনের জন্য আরো উদ্যমী করে তোলবে। পরিবার বা প্রিয়জন নিয়ে ঢাকা ও আশপাশ থেকে একদিনে ঘুরে আসার জন্যে আপনার পছন্দের জায়গা হতে পারে পদ্মা নদীর পাড়ের এই পদ্মা রিসোর্ট।

পদ্মা রিসোর্টে মোট ১৬ টি ডুপ্লেক্স কটেজ রয়েছে। প্রতিটি কটেজই একটি বড় বেডরুম, দুটি সিঙ্গেল বেডরুম এবং একটি ড্রইংরুমের সমন্বয়ে তৈরি করা হয়েছে। আর দুটি সুন্দর ব্যালকনি ও একটি বাথরুম রয়েছে। বাঁশ ও তাল গাছের কাঠ দিয়ে তৈরী প্রতি কটেজে ৮ জন অনায়াসেই থাকা যায়। কটেজগুলো বেশ সাজানো-গুছানো এবং পরিষ্কার-পরিছন্ন। বর্ষাকালে কটেজগুলোকে পানির রাজ্যে ভাসমান দ্বীপের মত মনে হয় আর শীতকালে কটেজের আশেপাশে নানান রঙের ফুলে ভরে থাকে। ১২ টি কটেজের নামকরণ করা হয়েছে বাংলা ১২ মাসের নাম অনুযায়ী আর বাকি ৪ টি কটেজের নাম দেয়া হয়েছে ঋতুর নামে। একটু নিরিবিলিতে থাকতে চাইলে বাংলা মাসের নামে পরিচিত পশ্চিম দিকের কটেজগুলো বেছে নিতে পারেন।

যা কিছু পাবেন পদ্মা রিসোর্টে

কটেজের বাইরে পদ্মার নয়নাভিরাম সৌন্দর্য্য উপভোগ করার জন্য লেভিশ বিচ চেয়ারে শরীর এলিয়ে দিতে পারেন কিংবা ঘোড়ায় চড়ে বেড়াতে পারেন পদ্মার পাড়।বন্ধুদের সাথে হ্যাংআউট করতে পদ্মা রিসোর্ট হতে পারে আদর্শ জায়গা। এখানে বন্ধুদের সাথে ফুটবল, ব্যাডমিন্টন, বিচ ভলিবল, ঘুড়ি উড়ানো, ফ্রিজবি খেলায় মেতে উঠতে পারেন।

নৌকা ভ্রমণ করতে চাইলে বিভিন্ন ছোট বড় নৌকার ব্যবস্থা করা আছে পদ্মা রিসোর্টে। রাবার বোট, স্পিড বোট বা কান্ট্রি বোটে ঘুরে আসতে পারেন পদ্মার বুক থেকে কিংবা ফিশিং বোটে করে চলে যেতে পারেন মাছ শিকারে। ভ্রমনকারীদের নিরাপত্তার কথা চিন্তা করে এখানে প্রত্যেক বোটেই লাইফ জ্যাকেটের ব্যবস্থা রাখা হয়েছে।

পদ্মা রিসোর্ট যাবার উপায়

ঢাকার গুলিস্থান থেকে গাংচিল কিংবা ইলিশ পরিবহনের বাস দিয়ে লৌহজং যেতে পারবেন। জনপ্রতি ৭০ টাকা ভাড়া লাগতে পারে। আর যদি আপনি মিরপুর ১০, ফার্মগেট অথবা শাহবাগ থেকে যেতে চান তবে স্বাধীন পরিবহনের বাস আপনাকে লৌহজং পৌছে দেবে।

আবার আপনি গুলিস্থান থেকে গ্রেট বিক্রমপুর পরিবহনের বাসে করে মাওয়া ফেরী ঘাট এসে লৌহজং চৌরাস্তা মোড় দিয়ে রিক্সা বা অটোরিক্সা নিয়ে সর্বোচ্চ ১৫ থেকে ২০ মিনিটে পৌঁছে যাবেন পদ্মা রিসোর্টে। এক্ষেত্রে রোড ম্যাপ হবেঃ মাওয়া ফেরী ঘাট > লৌহজং চৌরাস্তা মোড় > লৌহজং পুলিশ ফাঁড়ী > পদ্মা রিসোর্ট

আর নিজের গাড়ি নিয়ে গেলে রাস্তায় দুটো স্থানে টোল দিতে হবে ৬০ টাকা। গাড়ি পার্কিং করতে লৌহজং থানার সামনে যেতে হবে। লৌহজং থানার কাছে মসজিদের ঘাটে ইঞ্জিন চালিত নৌকা ও স্পিডবোট পাওয়া যায়। ৫০ টাকা ট্রলার ভাড়ায় যেতে পারবেন পদ্মা রিসোর্টে।

মাওয়া থেকে পদ্মা রিসোর্ট
মাওয়া ফেরি ঘাট হতে রিসোর্টের নিজস্ব স্পীডবোটে করে সরাসরি রিসোর্টে। আর আগে যোগাযোগ করে রাখলে রিসোর্টের নৌকা আপনাদের ভাড়ায় পাড়ে নিয়ে যাবে এবং পরবর্তীতে ঘাটে ফিরিয়ে দিয়ে যাবে। মাওয়া থেকে সড়ক পথে অটো বা সি.এন.জি তে করে ঘোড়াদৌড়/লৌহজং যাবেন, সেখানে বললেই হবে আপনাকে ট্রলারের ঘাটে নামিয়ে দিবে, তারপর জনপ্রতি ৫০ টাকা ট্রলার ভাড়ায় পদ্মা রিসোর্টে নিয়ে যাবে।

পদ্মা রিসোর্ট খরচ

সকাল ১০ টা থেকে সন্ধ্যা ৬ টা পর্যন্ত কটেজ ভাড়া নিতে ২৩০০ টাকা লাগবে (ভ্যাট সহ)। আর সকাল ১০ টা থেকে পর দিন সকাল ১০ টা পর্যন্ত থাকলে কটেজ ভাড়া দিতে হবে ৩৪৫০ টাকা (ভ্যাট সহ)। পদ্মার বুকে ঘুরতে চাইলে স্পিডবোট প্রতি ঘন্টায় প্রায় ২৫০০ টাকা লাগে, সাম্পান নৌকায় ঘন্টা প্রতি লাগে ১২০০ টাকা এবং ট্রলারে প্রতি ঘন্টায় দিতে হয় ৬০০ টাকা।

খাবারের ব্যবস্থা

পদ্মা রিসোর্টে সু-সজ্জিত একটি রেস্টুরেন্ট আছে, এখানে ২০ টি টেবিলে প্রায় ২০০ জন লোক এক সাথে খাবার খেতে পারে। এই রেস্টুরেন্টে দুপুর ও রাতের বেলা খেতে চাইলে রিসোর্ট অফিসে জনপ্রতি ৩০০ টাকার ১৫% ভ্যাটসহ ৩৫০ টাকা প্রদান করে ফুড টোকেন সংগ্রহ করতে হয়। দুপুরের খাবার মেনুতে সাধারনত ভাত, ইলিশ ফ্রাই (১ পিস), মুরগীর মাংস (১ পিস), সবজি, সালাত ইত্যাদি থাকে। এই রেস্টুরেন্টে সকাল বেলা পরটা, সবজি, ডিম আর চা দিয়ে নাস্তা করতে ১০০ টাকা লাগবে। খাবার পানি আলাদা টাকা দিয়ে কিনে খেতে হয়, যা খাবারের টাকার সাথে যুক্ত নয়।

রিসোর্ট বুকিং দিতে যোগাযোগ

সরকারী ছুটির দিনে পদ্মা রিসোর্টে যেতে চাইলে অবশ্যই আগে বুকিং মানি পরিশোধ করে নিজের বুকিং নিশ্চিত করতে হবে। এছাড়া আপনি রিসোর্টে গিয়েও খালি থাকা সাপেক্ষে ভাড়া নিতে পারবেন।

ঢাকা অফিস : গ্রাউন্ড ফ্লোর, হাউজ – ৩৮০, রোড – ২৮, মহাখালি নিউ DOHS, ঢাকা।
মোবাইল : 01752987688, 01680550598
রিসোর্ট : 01746026134, 01625788920
ইমেইল : info@padmaresort.net
ওয়েবসাইট : padmaresort.net

মুন্সিগঞ্জ জেলার অন্যান্য দর্শনীয় স্থান

ঢাকার আশেপাশের জনপ্রিয় ১০ রিসোর্ট

ম্যাপে পদ্মা রিসোর্ট

শেয়ার করুন সবার সাথে

ভ্রমণ গাইড টিম সব সময় চেষ্টা করছে আপনাদের কাছে হালনাগাদ তথ্য উপস্থাপন করতে। যদি কোন তথ্যগত ভুল কিংবা স্থান সম্পর্কে আপনার কোন পরামর্শ থাকে মন্তব্যের ঘরে জানান অথবা আমাদের সাথে যোগাযোগ পাতায় যোগাযোগ করুন।
দৃষ্টি আকর্ষণ : যে কোন পর্যটন স্থান আমাদের সম্পদ, আমাদের দেশের সম্পদ। এইসব স্থানের প্রাকৃতিক কিংবা সৌন্দর্য্যের জন্যে ক্ষতিকর এমন কিছু করা থেকে বিরত থাকুন, অন্যদেরকেও উৎসাহিত করুন। দেশ আমাদের, দেশের সকল কিছুর প্রতি যত্নবান হবার দায়িত্বও আমাদের।
সতর্কতাঃ হোটেল, রিসোর্ট, যানবাহন ভাড়া ও অন্যান্য খরচ সময়ের সাথে পরিবর্তন হয় তাই ভ্রমণ গাইডে প্রকাশিত তথ্য বর্তমানের সাথে মিল না থাকতে পারে। তাই অনুগ্রহ করে আপনি কোথায় ভ্রমণে যাওয়ার আগে বর্তমান ভাড়া ও খরচের তথ্য জেনে পরিকল্পনা করবেন। এছাড়া আপনাদের সুবিধার জন্যে বিভিন্ন মাধ্যম থেকে হোটেল, রিসোর্ট, যানবাহন ও নানা রকম যোগাযোগ এর মোবাইল নাম্বার দেওয়া হয়। এসব নাম্বারে কোনরূপ আর্থিক লেনদেনের আগে যাচাই করার অনুরোধ করা হলো। কোন আর্থিক ক্ষতি বা কোন প্রকার সমস্যা হলে তার জন্যে ভ্রমণ গাইড দায়ী থাকবে না।