রাজধানী ঢাকার মিরপুর ১-এর চটবাড়ী এলাকায় আশুলিয়া বেড়িবাঁধ সড়কে প্রায় ১২ একর জমির উপর দৃষ্টিনন্দন পিকনিক ও শুটিং স্পট নেভারল্যান্ড – দ্যা আরবান এস্কেপ (Neverland) গড়ে তোলা হয়েছে। রাজধানী ঢাকার মধ্যে বৃক্ষের সুশীতল ছায়াঘেরা নদী তীরের মুক্ত বাতাস ও কোলাহলহীন পরিবেশে পরিবার কিংবা বন্ধু-বান্ধবের সাথে অবসর সময় কাটানোর জন্য নেভারল্যান্ড একটি সেরা বিনোদন কেন্দ্রের নাম।

তামান্না ওয়ার্ল্ড ফ্যামিলি পার্ক-এর কাছে অবস্থিত তুরাগ নদী দিয়ে ঘেরা সাজানো গুছানো নেভারল্যান্ড পিকনিক স্পটে আছে বাংলা ও চাইনিজ খাবারের রেস্টুরেন্ট, বাচ্চাদের জন্য প্লে জোন, কার পার্কিং এবং নৌ-ভ্রমনের ব্যবস্থা। এছাড়া বেড়িবাঁধ ধরে নেভারল্যান্ড পার্কে যাওয়ার রাস্তাটি খুবই উপভোগ্য। প্রতিদিন বিকেল বেলা ও অন্যান্য ছুটির দিনগুলোতে নেভারল্যান্ড এবং বেড়িবাঁধে অনেক বিনোদন প্রেমীদের আগমণ ঘটে।

সময়সূচী
নেভারল্যান্ড পিকনিক স্পট প্রতিদিন সকাল ৯ টা থেকে রাত ৯ টা পর্যন্ত দর্শনার্থীদের জন্য খোলা থাকে।

প্রবেশ ফি ও অন্যান্য খরচ

নেভারল্যান্ড পিকনিক স্পটে প্রবেশ করার জন্য কোন প্রকার প্রবেশ ফি প্রদান করতে হয় না। তবে তুরাগ নদীতে ১ ঘন্টার জন্য ময়ূরপঙ্খী নৌকায় চড়তে জনপ্রতি ১০০ টাকা লাগে। নেভারল্যান্ডের রেস্টুরেন্টে বাংলা ও চাইনিজ খাবার খেতে ১০০ টাকা থেকে ৫০০ টাকা ব্যয় করতে হবে। এখানে বিভিন্ন সেট মেন্যুর সর্বনিন্ম মূল্য ২২০ টাকা।

যোগাযোগ
মোবাইল: 01635-035262, 01987-121383, 01906-309816,
01711-737560, 01970-092101
ফেসবুক: www.facebook.com/DhakaScape/
ওয়েবসাইট: www.findlocality.com/neverlandtheurbanescape

নেভারল্যান্ড কিভাবে যাবেন

ঢাকার যেকোন জায়গা থেকে মিরপুর ১ নম্বর বাসস্ট্যান্ড অথবা মাজার রোড এসে রিকশা নিয়ে নেভারল্যান্ড পিকনিক স্পট যেতে পারবেন। আর গাবতলী বাসস্ট্যান্ড থেকে লেগুনায় চড়ে নেভারল্যান্ড যেতে ১৫ মিনিটের মত সময় লাগে।

ফিচার ইমেজ: মাহবুব আলম

ম্যাপে নেভারল্যান্ড

শেয়ার করুন সবার সাথে

ভ্রমণ গাইড টিম সব সময় চেষ্টা করছে আপনাদের কাছে হালনাগাদ তথ্য উপস্থাপন করতে। যদি কোন তথ্যগত ভুল কিংবা স্থান সম্পর্কে আপনার কোন পরামর্শ থাকে মন্তব্যের ঘরে জানান অথবা আমাদের সাথে যোগাযোগ পাতায় যোগাযোগ করুন।
দৃষ্টি আকর্ষণ : যে কোন পর্যটন স্থান আমাদের সম্পদ, আমাদের দেশের সম্পদ। এইসব স্থানের প্রাকৃতিক কিংবা সৌন্দর্য্যের জন্যে ক্ষতিকর এমন কিছু করা থেকে বিরত থাকুন, অন্যদেরকেও উৎসাহিত করুন। দেশ আমাদের, দেশের সকল কিছুর প্রতি যত্নবান হবার দায়িত্বও আমাদের।
সতর্কতাঃ হোটেল, রিসোর্ট, যানবাহন ভাড়া ও অন্যান্য খরচ সময়ের সাথে পরিবর্তন হয় তাই ভ্রমণ গাইডে প্রকাশিত তথ্য বর্তমানের সাথে মিল না থাকতে পারে। তাই অনুগ্রহ করে আপনি কোথায় ভ্রমণে যাওয়ার আগে বর্তমান ভাড়া ও খরচের তথ্য জেনে পরিকল্পনা করবেন। এছাড়া আপনাদের সুবিধার জন্যে বিভিন্ন মাধ্যম থেকে হোটেল, রিসোর্ট, যানবাহন ও নানা রকম যোগাযোগ এর মোবাইল নাম্বার দেওয়া হয়। এসব নাম্বারে কোনরূপ আর্থিক লেনদেনের আগে যাচাই করার অনুরোধ করা হলো। কোন আর্থিক ক্ষতি বা কোন প্রকার সমস্যা হলে তার জন্যে ভ্রমণ গাইড দায়ী থাকবে না।