করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে আগামী কিছুদিন কোথাও ভ্রমণ থেকে বিরত থাকুন। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন ও সচেতন থাকুন। করোনা ভাইরাস সংক্রান্ত সকল তথ্য জানতে এখানে ক্লিক করুন

জয়পুরহাট জেলার কালাই উপজেলার নান্দাইল গ্রামে অবস্থিত এক ঐতিহাসিক দীঘির নাম নান্দাইল দিঘী (Nandail Dighi)। জয়পুরহাট শহর থেকে ১৯ কিলোমিটার পূর্বে জেলার সবচেয়ে বড় এই দিঘীটির অবস্থান। প্রায় ১ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের নান্দাইল দিঘী ৫৯.৪ একর জায়গা জুড়ে বিস্তৃত। প্রচলিত আছে, ১৬১০ সালে মৌর্য্য বংশের সম্রাট নন্দলাল শুকনো মৌসুমে চাষাবাদের সুবিধা এবং খাবার পানির অভাব পূরণের উদ্দেশ্যে ঐতিহাসিক নান্দাইল দিঘী খনন করেন। স্থানীয় জনগণ বিশ্বাস করেন, নান্দাইল দিঘী খনন করতে মাত্র এক রাত সময় লাগে। এক সময়ের উচুঁ নিচু টিলা ও ঘন বন সমৃদ্ধ দীঘির চারপাশে বর্তমানে বসতি গড়ে তোলা হয়েছে।

অনবদ্য প্রাকৃতিক সৌন্দর্যের অধিকারী নান্দাইল দিঘী বর্তমানে পিকনিক স্পট হিসেবে ব্যাপকভাবে জনপ্রিয়। আর শীতকালে এখানে প্রচুর অতিথি পাখির আগমন ঘটে। এছাড়া দিঘীর পাড়ে নান্দাইল কলেজ স্থাপন করা হয়েছে।

কিভাবে যাবেন

জয়পুরহাট শহর থেকে স্থানীয় পরিবহণ ব্যবস্থায় ১৯ কিলোমিটার পূর্বে কালাই থানার নান্দাইল গ্রামে অবস্থিত নান্দাইল দিঘি দেখতে যেতে পারবেন।

ঢাকা থেকে জয়পুরহাট: ঢাকার বিভিন্ন স্থান (গাবতলি, মহাখালী, আব্দুল্লাহপুর, শ্যামলী এবং কল্যাণপুর) হতে শাহ্‌ ফতেহ আলী পরিবহণ, সেইন্টমার্টিন ট্রাভেলস, শ্যামলী পরিবহন এন আর, এস আর ট্রাভেলস, হানিফ ইত্যাদি বাস জয়পুরহাটের উদ্দেশ্যে যাত্রা করে। এসি/ নন-এসি বাসের জনপ্রতি টিকেট মূল্য ৪০০ টাকা থেকে ৮০০ টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকে। এছাড়া ঢাকার কমলাপুর কিংবা বিমানবন্দর রেলওয়ে ষ্টেশন থেকে নীলসাগর, একতা এবং দ্রুতযান এক্সপ্রেসে জয়পুরহাট যাওয়া যায়।

কোথায় থাকবেন

জয়পুরহাট জেলা শহরের অবস্থিত আবাসিক হোটেলগুলোর মধ্যে হোটেল সৌরভ ইন্টারন্যাশনাল, হোটেল জাহান আরা ইন্টারন্যাশনাল, জসিম রেসিডেন্সিয়াল হোটেল, পৃথিবী হোটেল এবং হোটেল বৈশাখী রেসিডেন্সিয়াল উল্লেখযোগ্য।

কোথায় খাবেন

জয়পুরহাটের ভাল মানের চাইনিজ এবং বাংলা খাবারের রেস্টুরেন্টের মধ্যে রয়েছে ক্যাফে অরেঞ্জ চাইনিজ রেস্টুরেন্ট, বিসমিল্লা হোটেল এন্ড রেস্টুরেন্ট, রুচিটা রেস্টুরেন্ট এন্ড চাইনিজ, মিনা এবং প্রিন্স রেস্টুরেন্ট।

ফিচার ইমেজ: জিহান আহমেদ

ম্যাপে নান্দাইল দিঘী

শেয়ার করুন সবার সাথে

ভ্রমণ গাইড টিম সব সময় চেষ্টা করছে আপনাদের কাছে হালনাগাদ তথ্য উপস্থাপন করতে। যদি কোন তথ্যগত ভুল কিংবা স্থান সম্পর্কে আপনার কোন পরামর্শ থাকে মন্তব্যের ঘরে জানান অথবা আমাদের সাথে যোগাযোগ পাতায় যোগাযোগ করুন।
দৃষ্টি আকর্ষণ : যে কোন পর্যটন স্থান আমাদের সম্পদ, আমাদের দেশের সম্পদ। এইসব স্থানের প্রাকৃতিক কিংবা সৌন্দর্য্যের জন্যে ক্ষতিকর এমন কিছু করা থেকে বিরত থাকুন, অন্যদেরকেও উৎসাহিত করুন। দেশ আমাদের, দেশের সকল কিছুর প্রতি যত্নবান হবার দায়িত্বও আমাদের।
সতর্কতাঃ হোটেল, রিসোর্ট, যানবাহন ভাড়া ও অন্যান্য খরচ সময়ের সাথে পরিবর্তন হয় তাই ভ্রমণ গাইডে প্রকাশিত তথ্য বর্তমানের সাথে মিল না থাকতে পারে। তাই অনুগ্রহ করে আপনি কোথায় ভ্রমণে যাওয়ার আগে বর্তমান ভাড়া ও খরচের তথ্য জেনে পরিকল্পনা করবেন। এছাড়া আপনাদের সুবিধার জন্যে বিভিন্ন মাধ্যম থেকে হোটেল, রিসোর্ট, যানবাহন ও নানা রকম যোগাযোগ এর মোবাইল নাম্বার দেওয়া হয়। এসব নাম্বারে কোনরূপ আর্থিক লেনদেনের আগে যাচাই করার অনুরোধ করা হলো। কোন আর্থিক ক্ষতি বা কোন প্রকার সমস্যা হলে তার জন্যে ভ্রমণ গাইড দায়ী থাকবে না।