গ্রামীণ পরিবেশ এবং সবুজ প্রকৃতির সাথে অবসর কাটানোর জন্য ময়মনসিংহ (Mymensingh) জেলার ভালুকায় মেঘমাটি ভিলেজ রিসোর্ট (Meghmati Village Resort) গড়ে তোলা হয়েছে। রাজধানী ঢাকা থেকে মেঘমাটি ভিলেজ রিসোর্টে যেতে মাত্র আড়াই ঘণ্টা সময় লাগে। মেঘমাটি রিসোর্টে আধুনিক সুযোগসুবিধা সম্পন্ন একটি দ্বিতল ভিলার সাথে চমৎকার একটি সুইমিং পুল যুক্ত রয়েছে। আর রিসোর্টের চারপাশে রয়েছে বিভিন্ন রকম ফলের গাছ।

মেঘমাটি ভিলেজ রিসোর্টে ইনডোর এবং আউটডোর উভয় রকম খেলাধুলার সুব্যবস্থা আছে। মাঠে খেলাধুলায় মেতে উঠার জন্য খেলার উপকরন কতৃপক্ষই সরবরাহ করে থাকে।

খরচ

মেঘমাটি ভিলেজ রিসোর্টে বছরের বিভিন্ন সময় ভিন্ন ভিন্ন প্যাকেজ চালু থাকে। তাই সবচেয়ে ভাল উপায় হলো রিসোর্ট কতৃপক্ষের সাথে আগেই যোগাযোগ করে রিসোর্টে বুকিং দেয়া।

সম্পূর্ণ পরিবার নিয়ে মেঘমাটি ভিলেজ রিসোর্টে অবকাশ যাপনের জন্য ‘ফ্যামিলি ডেআউট’ নামে বিশেষ প্যাকেজ চালু আছে। ৬ জনের ফ্যামিলি ডেআউট প্যাকেজের মূল্য ২৫,২০০ টাকা। ডেআউট প্যাকেজের মধ্যে রয়েছে ঢাকা থেকে রিসোর্টে যাতায়াত, সকাল ও দুপুরের খাবার, বিকেলের নাস্তা এবং মেঘমাটি ভিলেজ রিসোর্টে সারাদিন কাটানোর সুযোগ।

যোগাযোগ
মোবাইল: 01613-555953, 01911-771155
ফেইসবুক: www.facebook.com/meghmati

কিভাবে যাবেন

মেঘমাটি ভিলেজ রিসোর্টে বুকিং দিলেই ঢাকা থেকে রিসোর্টের গাড়িতে করে যাওয়ার সুযোগ রয়েছে। আর যদি নিজস্ব পরিবহনে রিসোর্টে যেতে চান তবে আপনাকে ঢাকা থেকে ৭২ কিলোমিটার দূরে ময়মনসিংহের ভালুকায় আসতে হবে।

শেয়ার করুন সবার সাথে

ভ্রমণ গাইড টিম সব সময় চেষ্টা করছে আপনাদের কাছে হালনাগাদ তথ্য উপস্থাপন করতে। যদি কোন তথ্যগত ভুল কিংবা স্থান সম্পর্কে আপনার কোন পরামর্শ থাকে মন্তব্যের ঘরে জানান অথবা আমাদের সাথে যোগাযোগ পাতায় যোগাযোগ করুন।
দৃষ্টি আকর্ষণ : যে কোন পর্যটন স্থান আমাদের সম্পদ, আমাদের দেশের সম্পদ। এইসব স্থানের প্রাকৃতিক কিংবা সৌন্দর্য্যের জন্যে ক্ষতিকর এমন কিছু করা থেকে বিরত থাকুন, অন্যদেরকেও উৎসাহিত করুন। দেশ আমাদের, দেশের সকল কিছুর প্রতি যত্নবান হবার দায়িত্বও আমাদের।
সতর্কতাঃ হোটেল, রিসোর্ট, যানবাহন ভাড়া ও অন্যান্য খরচ সময়ের সাথে পরিবর্তন হয় তাই ভ্রমণ গাইডে প্রকাশিত তথ্য বর্তমানের সাথে মিল না থাকতে পারে। তাই অনুগ্রহ করে আপনি কোথায় ভ্রমণে যাওয়ার আগে বর্তমান ভাড়া ও খরচের তথ্য জেনে পরিকল্পনা করবেন। এছাড়া আপনাদের সুবিধার জন্যে বিভিন্ন মাধ্যম থেকে হোটেল, রিসোর্ট, যানবাহন ও নানা রকম যোগাযোগ এর মোবাইল নাম্বার দেওয়া হয়। এসব নাম্বারে কোনরূপ আর্থিক লেনদেনের আগে যাচাই করার অনুরোধ করা হলো। কোন আর্থিক ক্ষতি বা কোন প্রকার সমস্যা হলে তার জন্যে ভ্রমণ গাইড দায়ী থাকবে না।