জামালপুর জেলা সদরের বেলটিয়ায় নিরিবিলি পরিবেশে লুইস ভিলেজ রিসোর্ট এন্ড পার্ক (Luis Village Resort and Park) গড়ে তোলা হয়েছে। ২০১৬ সালে প্রায় ১০ একর জায়গাজুড়ে নির্মিত এই পার্কটি ইতিমধ্যেই ময়মনসিংহ বিভাগের মধ্যে সর্বাধুনিক বিনোদন কেন্দ্র হিসাবে সারাদেশের বিভিন্ন অঞ্চলের পর্যটকদের দৃষ্টি আকর্ষণে সক্ষম হয়েছে। লুইস ভিলেজ রিসোর্ট এন্ড পার্কে ওয়ান্ডার হুইল, বাম্পার কার, সুইং চেয়ার, মেরী গো রাউন্ড, মিনি ট্রেন, কফি কাপ এবং বোট রাইডিংসহ সর্বমোট ১৪ টি দেশি বিদেশি রাইড রয়েছে।

লুইস ভিলেজ রিসোর্ট এন্ড পার্কে আরো আছে শিশুদের খেলনা ও হস্তশিল্প পণ্যের দোকান, ফাস্টফুড কর্ণার, পরিচ্ছন্ন রেস্টুরেন্ট এবং রাত্রিযাপনের জন্য রিসোর্টের সুবিধা। এছাড়া যেকোন ধরণের অনুষ্ঠান আয়োজনের জন্য এখানে একটি কনভেনশন সেন্টার রয়েছে।

সময়সূচী ও প্রবেশ টিকেটের মূল্য
লুইস ভিলেজ রিসোর্ট এ্যান্ড পার্কে প্রবেশ করতে ১০০ টাকা দিয়ে প্রবেশ টিকেট সংগ্রহ করতে হয়। পার্কটি প্রতিদিন সকাল ১০ টা থেকে রাত ৮ টা পর্যন্ত দর্শনার্থীদের জন্য উন্মুক্ত থাকে।

যোগাযোগ
মোবাইল: 01712-012848

কিভাবে যাবেন

ঢাকা থেকে বাস এবং ট্রেনে জামালপুর আসার সুযোগ রয়েছে। আর ঢাকা হতে জামালপুর যাওয়ার ক্ষেত্রে সড়ক পথের চেয়ে রেলপথ বেশি সুবিধাজনক। ঢাকার কমলাপুর রেলস্টেশন থেকে যমুনা এক্সপ্রেস, তিস্তা এক্সপ্রেস, ব্রহ্মপুত্র এক্সপ্রেস এবং অগ্নিবীণা এক্সপ্রেস ট্রেনে চড়ে জামালপুর যাওয়া যায়। আর ঢাকা থেকে বাসে যেতে চাইলে মহাখালী বাস স্ট্যান্ড থেকে মহানগর, এনা কিংবা রাজীব পরিবহণের বাসে জামালপুর যেতে পারবেন।

জামালপুর শহর থেকে রিকশা বা অটোরিকশা যোগে মাত্র ২ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত লুইস ভিলেজ রিসোর্ট এন্ড পার্ক যেতে ১০ থেকে ১৫ মিনিট সময় লাগে।

কোথায় থাকবেন

লুইস ভিলেজ রিসোর্ট এন্ড পার্কের কটেজগুলোতে রাত্রিযাপনের সুযোগ রয়েছে। এছাড়া জামালপুর সদরের আবাসিক হোটেলগুলোতেও রাতে থাকতে পারবেন। জামালপুরের আবাসিক হোটেলগুলোর মধ্যে হোটেল রায়ান ইন্টারন্যাশনাল (+8801735-544650), হোটেল সৌদিয়া ইন্টারন্যাশনাল (01766-755755), হোটেল শেখ রিপন ইন্টারন্যাশনাল (01717-629225), হোটেল প্রতিক্ষা (01912-877811), হোটেল আল সামাদ (01725-067720) উল্লেখযোগ্য।

শেয়ার করুন সবার সাথে

ভ্রমণ গাইড টিম সব সময় চেষ্টা করছে আপনাদের কাছে হালনাগাদ তথ্য উপস্থাপন করতে। যদি কোন তথ্যগত ভুল কিংবা স্থান সম্পর্কে আপনার কোন পরামর্শ থাকে মন্তব্যের ঘরে জানান অথবা আমাদের সাথে যোগাযোগ পাতায় যোগাযোগ করুন।
দৃষ্টি আকর্ষণ : যে কোন পর্যটন স্থান আমাদের সম্পদ, আমাদের দেশের সম্পদ। এইসব স্থানের প্রাকৃতিক কিংবা সৌন্দর্য্যের জন্যে ক্ষতিকর এমন কিছু করা থেকে বিরত থাকুন, অন্যদেরকেও উৎসাহিত করুন। দেশ আমাদের, দেশের সকল কিছুর প্রতি যত্নবান হবার দায়িত্বও আমাদের।
সতর্কতাঃ হোটেল, রিসোর্ট, যানবাহন ভাড়া ও অন্যান্য খরচ সময়ের সাথে পরিবর্তন হয় তাই ভ্রমণ গাইডে প্রকাশিত তথ্য বর্তমানের সাথে মিল না থাকতে পারে। তাই অনুগ্রহ করে আপনি কোথায় ভ্রমণে যাওয়ার আগে বর্তমান ভাড়া ও খরচের তথ্য জেনে পরিকল্পনা করবেন। এছাড়া আপনাদের সুবিধার জন্যে বিভিন্ন মাধ্যম থেকে হোটেল, রিসোর্ট, যানবাহন ও নানা রকম যোগাযোগ এর মোবাইল নাম্বার দেওয়া হয়। এসব নাম্বারে কোনরূপ আর্থিক লেনদেনের আগে যাচাই করার অনুরোধ করা হলো। কোন আর্থিক ক্ষতি বা কোন প্রকার সমস্যা হলে তার জন্যে ভ্রমণ গাইড দায়ী থাকবে না।