লালবাগ কেল্লা (Lalbagh Fort) রাজধানী ঢাকার দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলে বুড়িগঙ্গা নদীর তীরে পুরান ঢাকার লালবাগ এলাকায় অবস্থিত। সম্রাট আওরঙ্গজেব লালবাগ কেল্লা নির্মাণের পরিকল্পনা গ্রহণ করলেও তাঁর পুত্র যুবরাজ শাহজাদা আজম ১৬৭৮ খ্রিষ্টাব্দে লালবাগ দূর্গের নির্মাণ কাজ আরম্ভ করেন। শুরুতে লালবাগ কেল্লার নাম দেয়া হয়েছিল আওরঙ্গবাদ দূর্গ বা আওরঙ্গবাদ কেল্লা। পরবর্তীতে ১৬৮৪ খিষ্টাব্দে সুবেদার শায়েস্তা খানের কন্যা ইরান দুখত পরীবিবি মারা যাওয়ার পর তিনি দূর্গটি তৈরির কাজ বন্ধ করে দেন। ১৮৪৪ সালে আওরঙ্গবাদ এলাকাটির নাম পরিবর্তন করে লালবাগ রাখা হয়। এলাকার নামের সাথে সাথে কেল্লাটির নামও পরিবর্তিত হয়ে লালবাগ কেল্লা হিসাবে পরিচিতি লাভ করে।

বর্তমানে সুবেদার শায়েস্তা খাঁনের বাসভবন ও দরবার হল ‘লালবাগ কেল্লা জাদুঘর’ হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে। লালবাগ কেল্লায় তিনটি ফটক থাকলেও এর মধ্যে দুইটিকে বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। ফটক দিয়ে প্রবেশের সাথে সাথে মনোরম বাগান মনকে প্রফুল্ল করে তোলে। প্রবেশ পথ ধরে সোজা এগিয়ে গেলে সামনে দেখাতে পাওয়া যায় শায়েস্তা খাঁনের কন্যা পরীবিবির স্মৃতির উদ্দেশ্যে নির্মিত সমাধি সৌধ। সমাধি সৌধটি বর্গাকৃতির এবং এর প্রত্যেক বাহুর দৈর্ঘ্য ২০.২ মিটার। মার্বেল পাথরে তৈরী সমাধি সৌধটি অনন্য কারুকার্যপূর্ণ এবং মূল সমাধি সৌধের উপরের তামার পাত দিয়ে মোড়ানো একটি কৃত্রিম গম্বুজটি রয়েছে।

এছাড়াও দর্শনীয় জিনিসগুলোর মধ্যে রয়েছে লালবাগ কেল্লা মসজিদ, সুন্দর ফোয়ারা, আরো কিছু সমাধি এবং তৎকালীন সময় যুদ্ধে ব্যবহৃত কামান/তোপ।

প্রবেশ টিকেট মূল্য

৫ বছর বয়সের নীচে বাচ্চাদের লালবাগ কেল্লা প্রবেশের জন্য কোন টিকেট লাগেনা। দেশী দর্শনার্থীদের কেল্লায় প্রবেশ করতে জনপ্রতি ১০ টাকায় টিকেট কাটতে হয় এবং বিদেশী পর্যটকদের টিকেটের জন্য জনপ্রতি ১০০ টাকা লাগে।

লালবাগ কেল্লা পরিদর্শনের সময়সূচী

সপ্তাহের রবি ও সোমবার যথাক্রমে পূর্ণ ও অর্ধ দিবসের জন্য লালবাগ কেল্লা বন্ধ থাকে। এছাড়াও সকল বিশেষ সরকারী ছুটির দিনে লালবাগ কেল্লা বন্ধ থাকে। কাল ও মাস ভেদে লালবাগ কেল্লা পরিদর্শনের সময়সূচি পরিবর্তিত হয়।

এপ্রিল থেকে সেপ্টেম্বর মাস (গ্রীষ্মকালে)

রবিবার – সাপ্তাহিক বন্ধ
সোমবার – দুপুর ২ঃ৩০ থেকে বিকেল ৬ টা পর্যন্ত
শুক্রবার – সকাল ১০ টা থেকে বিকেল ৬ টা (মাঝে দুপুর ১২ঃ৩০ থেকে ২টা পর্যন্ত বন্ধ)
সপ্তাহের বাকি দিন – সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৬ টা (মাঝে দুপুর ১ঃ০০ থেকে ১ঃ৩০ পর্যন্ত বন্ধ)

অক্টোবর থেকে মার্চ (শীতকালে)

রবিবার – সাপ্তাহিক বন্ধ
সোমবার – দুপুর ২ঃ৩০ থেকে বিকেল ৫ টা পর্যন্ত
শুক্রবার – সকাল ৯ টা থেকে বিকেল ৫ টা (মাঝে দুপুর ১২ঃ৩০ থেকে ২টা পর্যন্ত বন্ধ)
সপ্তাহের বাকি দিন – সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫ টা (মাঝে দুপুর ১ঃ০০ থেকে ১ঃ৩০ পর্যন্ত বন্ধ)

লালবাগ কেল্লা কিভাবে যাবেন

গুলিস্তান গোলাপ শাহের মাজার থেকে মাত্র ৬ টাকা ভারায় টেম্পু দিয়ে লালবাগ কেল্লায় যাওয়া যায়। শাহবাগে অবস্থিত বাংলাদেশ জাতীয় জাদুঘরের সামনে থেকে লালবাগ কেল্লা পরিদর্শনের জন্য বিশেষ বাস সার্ভিস রয়েছ। এছাড়া ঢাকার নিউমার্কেট এবং গুলিস্তান থেকে ৪০ থেকে ৫০ টাকা রিক্সা ভাড়ায় সহজেই লালবাগ কেল্লায় যাওয়া যায়।

ম্যাপে লালবাগ কেল্লা

শেয়ার করুন সবার সাথে

ভ্রমণ গাইড টিম সব সময় চেষ্টা করছে আপনাদের কাছে হালনাগাদ তথ্য উপস্থাপন করতে। যদি কোন তথ্যগত ভুল কিংবা স্থান সম্পর্কে আপনার কোন পরামর্শ থাকে মন্তব্যের ঘরে জানান অথবা আমাদের সাথে যোগাযোগ পাতায় যোগাযোগ করুন।
দৃষ্টি আকর্ষণ : যে কোন পর্যটন স্থান আমাদের সম্পদ, আমাদের দেশের সম্পদ। এইসব স্থানের প্রাকৃতিক কিংবা সৌন্দর্য্যের জন্যে ক্ষতিকর এমন কিছু করা থেকে বিরত থাকুন, অন্যদেরকেও উৎসাহিত করুন। দেশ আমাদের, দেশের সকল কিছুর প্রতি যত্নবান হবার দায়িত্বও আমাদের।
সতর্কতাঃ হোটেল, রিসোর্ট, যানবাহন ভাড়া ও অন্যান্য খরচ সময়ের সাথে পরিবর্তন হয় তাই ভ্রমণ গাইডে প্রকাশিত তথ্য বর্তমানের সাথে মিল না থাকতে পারে। তাই অনুগ্রহ করে আপনি কোথায় ভ্রমণে যাওয়ার আগে বর্তমান ভাড়া ও খরচের তথ্য জেনে পরিকল্পনা করবেন। এছাড়া আপনাদের সুবিধার জন্যে বিভিন্ন মাধ্যম থেকে হোটেল, রিসোর্ট, যানবাহন ও নানা রকম যোগাযোগ এর মোবাইল নাম্বার দেওয়া হয়। এসব নাম্বারে কোনরূপ আর্থিক লেনদেনের আগে যাচাই করার অনুরোধ করা হলো। কোন আর্থিক ক্ষতি বা কোন প্রকার সমস্যা হলে তার জন্যে ভ্রমণ গাইড দায়ী থাকবে না।