ঠাকুরগাঁও জেলার বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা থেকে ১০ কিলোমিটার দূরে হরিণমারী হাটের উপর প্রায় চারশত বছরের প্রাচীন হরিণমারী শিব মন্দির (Harinmari Shiv Temple) অবস্থিত। ত্রিশ ফুট উচ্চতা বিশিষ্ট বর্গাকৃতির এই মন্দিরের আয়তন ১৪ x ১৪ ফুট। চারচালা পদ্ধতিতে নির্মিত হরিণমারী শিব মন্দিরের দক্ষিণ দিকে দরজায় পোড়ামাটির ফলকে লতাপাতার নকশাকৃত বিভিন্ন মূর্তির প্রতিকৃতি রয়েছে। আর মন্দিরের পূর্ব দিকে আছে একটি বড় পুকুর। সঠিক রক্ষণাবেক্ষণ ও পরিচর্যার অভাবে হরিণমারী শিব মন্দিরের ছাদ ও অন্যান্য অংশ আজ ধ্বংসের পথে।

কিভাবে যাবেন

ঢাকা থেকে হরিণমারী শিব মন্দির দেখতে হলে প্রথমে ঠাকুরগাঁও জেলায় আসতে হবে। ঠাকুরগাঁও থেকে বালিয়াডাঙ্গী উপজেলার দূরত্ব প্রায় ২৫ কিলোমিটার। ঢাকা হতে সড়কপথে কর্ণফুলী, হানিফ, নাবিল, কেয়া কিংবা বাবলু প্রভৃতি পরিবহণের বাসে ঠাকুরগাঁও যেতে পারবেন। এছাড়া ঢাকা- লালমনিরহাট ও ঠাকুরগাঁও রুটে চলাচলকারী বিভিন্ন ট্রেনে ঠাকুরগাঁও পৌঁছানো যায়। ঠাকুরগাঁও থেকে বালিয়াডাঙ্গীতে যাওয়ার লোকাল বাস আছে। বালিয়াডাঙ্গী উপজেলা পৌঁছে ইজিবাইক/ভ্যানে চড়ে হরিণমারী শিব মন্দির দেখতে যেতে পারবেন।

কোথায় থাকবেন

ঠাকুরগাঁও জেলার নর্থ সার্কুলার রোডে হোটেল সালাম ইন্টারন্যাশনাল, হোটেল প্রাইম ইন্টারন্যাশনাল, হোটেল শাহ্‌ জালাল ও হোটেল সাদেক প্রভৃতি আবাসিক হোটেল রয়েছে। এছাড়া সার্কিট হাউজ ও জেলা পরিষদের রেস্ট হাউজে অনুমতি নিয়ে থাকতে পারবেন।

কোথায় খাবেন

ঠাকুরগাঁওয়ের বালিয়াডাঙ্গী উপজেলায় মধ্যম মানের কয়েকটি খাবারের হোটেল ও রেস্তোরাঁ আছে।

ঠাকুরগাঁও জেলার দর্শনীয় স্থান

ঠাকুরগাঁও জেলার অন্যান্য দর্শনীয় স্থানের মধ্যে বালিয়া মসজিদ, ফান সিটি শিশু পার্ক, জামালপুর জমিদার বাড়ি, লোকায়ন জীবন বৈচিত্র্য জাদুঘর, বালিয়াডাঙ্গী সূর্য্যপুরী আমগাছ ও রাজা টংকনাথের রাজবাড়ী উল্লেখযোগ্য।

ম্যাপে হরিণমারী শিব মন্দির

শেয়ার করুন সবার সাথে

ভ্রমণ গাইড টিম সব সময় চেষ্টা করছে আপনাদের কাছে হালনাগাদ তথ্য উপস্থাপন করতে। যদি কোন তথ্যগত ভুল কিংবা স্থান সম্পর্কে আপনার কোন পরামর্শ থাকে মন্তব্যের ঘরে জানান অথবা আমাদের সাথে যোগাযোগ পাতায় যোগাযোগ করুন।
দৃষ্টি আকর্ষণ : যে কোন পর্যটন স্থান আমাদের সম্পদ, আমাদের দেশের সম্পদ। এইসব স্থানের প্রাকৃতিক কিংবা সৌন্দর্য্যের জন্যে ক্ষতিকর এমন কিছু করা থেকে বিরত থাকুন, অন্যদেরকেও উৎসাহিত করুন। দেশ আমাদের, দেশের সকল কিছুর প্রতি যত্নবান হবার দায়িত্বও আমাদের।
সতর্কতাঃ হোটেল, রিসোর্ট, যানবাহন ভাড়া ও অন্যান্য খরচ সময়ের সাথে পরিবর্তন হয় তাই ভ্রমণ গাইডে প্রকাশিত তথ্য বর্তমানের সাথে মিল না থাকতে পারে। তাই অনুগ্রহ করে আপনি কোথায় ভ্রমণে যাওয়ার আগে বর্তমান ভাড়া ও খরচের তথ্য জেনে পরিকল্পনা করবেন। এছাড়া আপনাদের সুবিধার জন্যে বিভিন্ন মাধ্যম থেকে হোটেল, রিসোর্ট, যানবাহন ও নানা রকম যোগাযোগ এর মোবাইল নাম্বার দেওয়া হয়। এসব নাম্বারে কোনরূপ আর্থিক লেনদেনের আগে যাচাই করার অনুরোধ করা হলো। কোন আর্থিক ক্ষতি বা কোন প্রকার সমস্যা হলে তার জন্যে ভ্রমণ গাইড দায়ী থাকবে না।