নাটোর সদর থেকে ১০ কিলোমিটার দূরে নলডাঙ্গা থানার অন্তর্গত হালতির বিল (Halti Bill) জেলার একটি অন্যতম বিনোদন কেন্দ্র হিসেবে সুপরিচিত। নাটোর সদর উপজেলার পিপরুল, খাজুরা, মাধনগর ও ব্রহ্মপুর ইউনিয়ন জুড়ে হালতি বিলের বিস্তৃতি। আত্রাই নদীর সাথে যুক্ত থাকায় এই বিল প্রাকৃতিকভাবে বিভিন্ন প্রজাতির সুস্বাদু মাছের প্রজননস্থল হিসেবে বিখ্যাত। ঋতুতে ঋতুতে হালতির বিলের ভিন্ন ভিন্ন রূপের দেখা মিলে। বিশেষ করে বৈশাখ থেকে কার্তিক মাস পর্যন্ত বিলে আশেপাশের এলাকা ৫ ফুট থেকে ৮ ফুট পানিতে নিমজ্জিত থাকে। তখন বিলের মাঝে অবস্থিত ছোট ছোট গ্রামগুলো দেখতে দ্বীপের মতো মনে হয়। হালতি বিলের মধ্যে দিয়ে পিপরুলের সাথে খাজুরার সংযোগকারী প্রায় ৮ কিলোমিটার লম্বা সাবমারসিবল রাস্তাটি বিলের আরও সৌন্দর্য বাড়িয়ে তুলেছে।

হালতির বিল যাওয়ার পথে পাটুল থেকে খাজুরা পর্যন্ত রাস্তার সৌন্দর্য, উত্তাল ঢেউয়ে প্রবাহমান জলরাশি আর উদ্দাম বাতাস দর্শনার্থীদের মনকে সতেজ করে তোলে। উত্তরাঞ্চলের অনেকে তাই এই বিলকে মিনি সমুদ্র সৈকত হিসেবে আখ্যায়িত করেন। প্রতিবছর বর্ষাকালে এখানে নৌ-ভ্রমণ ও নয়ানভিরাম প্রাকৃতিক দৃশ্য উপভোগের জন্য প্রচুর পর্যটকের আগমন ঘটে।

কিভাবে যাবেন

ঢাকা থেকে সড়ক ও রেলপথে নাটোর যাওয়া যায়। রাজধানীর কল্যাণপুর কিংবা গাবতলী থেকে গ্রিনলাইন, শ্যামলী, ন্যাশনাল ও হানিফ পরিবহণের সরাসরি নাটোর অথবা রাজশাহীগামী বাসে চড়েও নাটোর পৌঁছাতে পারবেন। এছাড়া ঢাকা থেকে রংপুর, রূপসা, বারেন্দ্রা, তিতুমির, সীমান্ত, দ্রুতযান, নীল সাগর বা লালমনি এক্সপ্রেস ট্রেনেও নাটোর যাওয়া যায়। নাটোর জেলা শহরের মাদরাসা রোড থেকে অটোরিকশা, ভ্যান, মোটর সাইকেল বা সিএনজি নিয়ে নলডাঙ্গা উপজেলা থেকে মাত্র ২ কিলোমিটার দূরে অবস্থিত হালতির বিল দেখতে যেতে পারবেন।

কোথায় খাবেন

নাটোরের মাদ্রাসা মোড় ও রেলওয়ে ষ্টেশন সংলগ্ন এলাকায় রাত্রিযাপনের জন্য হোটেল মিল্লাত, হোটেল প্রিন্স, হোটেল রাজ, নাটোর, হোটেল রুখসানা প্রভৃতি আবাসিক হোটেল রয়েছে।

কোথায় খাবেন

নাটোর শহরের বনপাড়াতে ওয়ান সেভেন হোটেল, হোটেল ফাইভ স্টার, মোল্লা হোটেল ও ক্যাফে, হট চিলি ইত্যাদি রেস্টুরেন্ট রয়েছে। নাটোরের জনপ্রিয় খাবারের মধ্যে মাছ ও কাঁচাগোল্লা অন্যতম।

নাটোরের দর্শনীয় স্থান

নাটোরের দর্শনীয় স্থানের মধ্যে চলনবিল জাদুঘর, চলন বিল, রাণী ভবানী নাটোর রাজবাড়ী ও উত্তরা গণভবন উল্লেখযোগ্য।

ফিচার ইমেজ: ইশতিয়াক আহমেদ

ম্যাপে হালতির বিল

শেয়ার করুন সবার সাথে

ভ্রমণ গাইড টিম সব সময় চেষ্টা করছে আপনাদের কাছে হালনাগাদ তথ্য উপস্থাপন করতে। যদি কোন তথ্যগত ভুল কিংবা স্থান সম্পর্কে আপনার কোন পরামর্শ থাকে মন্তব্যের ঘরে জানান অথবা আমাদের সাথে যোগাযোগ পাতায় যোগাযোগ করুন।
দৃষ্টি আকর্ষণ : যে কোন পর্যটন স্থান আমাদের সম্পদ, আমাদের দেশের সম্পদ। এইসব স্থানের প্রাকৃতিক কিংবা সৌন্দর্য্যের জন্যে ক্ষতিকর এমন কিছু করা থেকে বিরত থাকুন, অন্যদেরকেও উৎসাহিত করুন। দেশ আমাদের, দেশের সকল কিছুর প্রতি যত্নবান হবার দায়িত্বও আমাদের।
সতর্কতাঃ হোটেল, রিসোর্ট, যানবাহন ভাড়া ও অন্যান্য খরচ সময়ের সাথে পরিবর্তন হয় তাই ভ্রমণ গাইডে প্রকাশিত তথ্য বর্তমানের সাথে মিল না থাকতে পারে। তাই অনুগ্রহ করে আপনি কোথায় ভ্রমণে যাওয়ার আগে বর্তমান ভাড়া ও খরচের তথ্য জেনে পরিকল্পনা করবেন। এছাড়া আপনাদের সুবিধার জন্যে বিভিন্ন মাধ্যম থেকে হোটেল, রিসোর্ট, যানবাহন ও নানা রকম যোগাযোগ এর মোবাইল নাম্বার দেওয়া হয়। এসব নাম্বারে কোনরূপ আর্থিক লেনদেনের আগে যাচাই করার অনুরোধ করা হলো। কোন আর্থিক ক্ষতি বা কোন প্রকার সমস্যা হলে তার জন্যে ভ্রমণ গাইড দায়ী থাকবে না।