নেত্রকোনা জেলা থেকে ৩৭ কিলোমিটার দূরে দূর্গাপুরের বিরিশিরিতে স্বায়ত্বশাসিত প্রতিষ্ঠান উপজাতীয় কালচারাল একাডেমী (Ethnic Cultural Academy) অবস্থিত। মূলত বৃহত্তর ময়মনসিংহ অঞ্চলে বসবাসরত হাজং, কোচ, ডালু, মান্দাই, বানাইসহ বিভিন্ন ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীদের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য সংরক্ষণ করার লক্ষ্য নিয়ে উপজাতীয় কালচারাল একাডেমী প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে।

ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর মানুষেরা নিজস্ব ভাষা, সামাজিক প্রথা, পোশাক- পরিচ্ছদ, খাদ্যাভাস, আচার- অনুষ্ঠান ও ঐতিহ্যবাহী সংস্কৃতিতে সমৃদ্ধ। কালের বিবর্তনে তাদের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্যের অনেকটাই হারিয়ে যাওয়ার উপক্রম হচ্ছিল। বাংলাদেশের ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীদের সংস্কৃতি বিশ্ব পরিমণ্ডলে তুলে ধরতে ১৯৭৭ সালে সংস্কৃতি মন্ত্রাণালয়ের একটি বিশেষ প্রকল্পের মাধ্যমে প্রায় ৩.২১ একর জায়গার উপর উপজাতীয় কালচারাল একাডেমী প্রতিষ্ঠা করা হয়। বর্তমানে এই কালচারাল একাডেমী “ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠী সাংস্কৃতিক আইন” অনুসারে পরিচালিত হচ্ছে।

বিভিন্ন ধরণের গাছ-গাছালীর সমন্বয়ে সাজানো উপজাতীয় কালচারাল একাডেমীতে সংস্কৃতি, গবেষণা, লাইব্রেরী, জাদুঘর প্রভৃতি ৪টি শাখা রয়েছে। দোতালার উপজাতীয় মিউজিয়ামে ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীদের জীবন যাত্রার বিভিন্ন নিদর্শন ও ব্যবহৃত জিনিস সংরক্ষণ করে রাখা আছে। এছাড়া একাডেমীর ক্যাম্পাসে একটি অডিটোরিয়াম এবং গেস্ট হাউজ রয়েছে। প্রতিবছর উপজাতীয়দের সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে এখানে দেশের বিভিন্ন অঞ্চল থেকে প্রচুর লোকের সমাগম ঘটে।

প্রবেশ মূল্য ও সময়সূচী

উপজাতীয় কালচারাল একাডেমীতে প্রবেশ মূল্য ২ টাকা, আর জাদুঘরে প্রবেশ মূল্য ১০ টাকা। একাডেমীর জাদুঘর সপ্তাহের রবিবার থেকে বৃহস্পতিবার এই ৫দিন খোলা থাকে।

কিভাবে যাবেন

ঢাকার মহাখালী বাস টার্মিনাল থেকে নেত্র বা শাহজালাল পরিবহণের বাসে নেত্রকোনা (Netrokona) যেতে পারবেন। নেত্রকোনা থেকে লোকাল বাসে দূর্গাপুর এসে রিকশায় করে উপজাতীয় কালচারাল একাডেমী পৌঁছাতে পারবেন। আবার ময়মনসিংহ থেকেও শ্যামগঞ্জ হয়ে উৎরাইল বাজারের কাছে অবস্থিত বিরিশিরি ক্ষুদ্র নৃ- গোষ্ঠী কালচারাল একাডেমী যাওয়া যায়। এছাড়া ঢাকা থেকে ট্রেনে দূর্গাপুরের জারিয়া ষ্টেশনে নেমে অটোরিকশা/সিএনজিতে কালচারাল একাডেমীতে যেতে পারবেন।

কোথায় খাবেন

দূর্গাপুরে হোটেল নিরালা, হোটেল দুলাল ও নিরিবিলি রেস্তোরাঁর মতো বেশ কিছু খাবারের হোটেল আছে। সুযোগ পেলে নেত্রকোনার জনপ্রিয় বালিশ মিষ্টির স্বাদ নিতে ভুলবেন না। 

নেত্রকোনা জেলার অন্যান্য দর্শনীয় স্থান

নেত্রকোনার অন্যান্য দর্শনীয় স্থানের মধ্যে বিরিশিরি, সোমেশ্বরী নদী, কমলারাণী দীঘি, সাত শহীদের মাজার ও ডিঙ্গা পোতা হাওর অন্যতম।

ফিচার ইমেজ: নেহাল নাহিয়ান

ম্যাপে উপজাতীয় কালচারাল একাডেমী

শেয়ার করুন সবার সাথে

ভ্রমণ গাইড টিম সব সময় চেষ্টা করছে আপনাদের কাছে হালনাগাদ তথ্য উপস্থাপন করতে। যদি কোন তথ্যগত ভুল কিংবা স্থান সম্পর্কে আপনার কোন পরামর্শ থাকে মন্তব্যের ঘরে জানান অথবা আমাদের সাথে যোগাযোগ পাতায় যোগাযোগ করুন।
দৃষ্টি আকর্ষণ : যে কোন পর্যটন স্থান আমাদের সম্পদ, আমাদের দেশের সম্পদ। এইসব স্থানের প্রাকৃতিক কিংবা সৌন্দর্য্যের জন্যে ক্ষতিকর এমন কিছু করা থেকে বিরত থাকুন, অন্যদেরকেও উৎসাহিত করুন। দেশ আমাদের, দেশের সকল কিছুর প্রতি যত্নবান হবার দায়িত্বও আমাদের।
সতর্কতাঃ হোটেল, রিসোর্ট, যানবাহন ভাড়া ও অন্যান্য খরচ সময়ের সাথে পরিবর্তন হয় তাই ভ্রমণ গাইডে প্রকাশিত তথ্য বর্তমানের সাথে মিল না থাকতে পারে। তাই অনুগ্রহ করে আপনি কোথায় ভ্রমণে যাওয়ার আগে বর্তমান ভাড়া ও খরচের তথ্য জেনে পরিকল্পনা করবেন। এছাড়া আপনাদের সুবিধার জন্যে বিভিন্ন মাধ্যম থেকে হোটেল, রিসোর্ট, যানবাহন ও নানা রকম যোগাযোগ এর মোবাইল নাম্বার দেওয়া হয়। এসব নাম্বারে কোনরূপ আর্থিক লেনদেনের আগে যাচাই করার অনুরোধ করা হলো। কোন আর্থিক ক্ষতি বা কোন প্রকার সমস্যা হলে তার জন্যে ভ্রমণ গাইড দায়ী থাকবে না।