করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে আগামী কিছুদিন কোথাও ভ্রমণ থেকে বিরত থাকুন। স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন ও সচেতন থাকুন। করোনা ভাইরাস সংক্রান্ত সকল তথ্য জানতে এখানে ক্লিক করুন

পার্বত্য চট্টগ্রামের সমৃদ্ধ জীববিচিত্র ও নয়নাভিরাম প্রাকৃতিক সৌন্দর্য সবসময় অ্যাডভেঞ্চার প্রিয় পর্যটকদের অপূর্ব সম্মোহনে কাছে টেনে নেয়। প্রকৃতির নিপুণ হাতে সাজানো পাহাড়-অরণ্যে ঘেরা চট্টগ্রামের এক বৈচিত্র্যময় ভ্রমণ গন্তব্যের নাম চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়। বাংলাদেশের সর্ববৃহৎ ১৭’শ ৫৩ একর আয়তনের এই বিশ্ববিদ্যালয়ে অভ্যন্তরে আছে বিভিন্ন রোমাঞ্চকর স্থান। চালন্দা গিরিপথ (Chalanda Giripath) তেমনি এক অসাধারণ অ্যাডভেঞ্চারপূর্ণ জায়গা।

চালন্দা গিরিপথের প্রতিটি পদক্ষেপে অদ্ভুত শিহরণজাগানিয়া রোমাঞ্চ অনুভব করা যায়। চারদিকের সবুজ প্রকৃতির সাথে স্বচ্ছ পানির ধারার মনে প্রশান্ত করে। চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের কলা অনুষদের ঝুপড়ির পাশের পাহাড় থেকে নেমে আসা ঝর্ণার উৎপত্তিস্থল বা ছড়ার পানি ধরে পশ্চিম দিকে ঘন্টা খানিক হেঁটে গেলে প্রাকৃতিক বিস্ময় চালন্দা গিরিপথের দর্শন পাওয়া যায়। গিরিপথের ভেতরে প্রবেশের সাথে সাথে হিমশীতল অনুভূতি শরীরকে ছুঁয়ে যায়। দুই পাহাড়ের মাঝখানে প্রকৃতির তৈরী রাস্তায় এগিয়ে যেতে সমানভাবে হাত পায়ের ব্যবহার করতে হয়। পাহাড়ের ঢালে ঢালে প্রকৃতির বর্নীল চিত্র যেন অজানা রহস্যের গোলকধাঁধা।

কিভাবে যাবেন

চট্টগ্রাম শহরের যেকোন স্থান থেকে বাস/সিএনজিতে চড়ে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় যাওয়া যায়। অথবা চট্টগ্রামের বটতলী রেলওয়ে ষ্টেশন থেকে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের শাটল ট্রেনে চড়ে ক্যাম্পাসে চলে আসুন। এরপর বিশ্ববিদ্যালয়ের জিরো পয়েন্ট এসে সেখান থেকে টমটমে করে কলা অনুষদের ঝুপড়ি-তে চলে যান। ঝুপড়ি হতে ৭-৮ মিনিট হাঁটার পরই পানির ছড়া পাবেন। ছড়া ধরে ঘন্টাখানেক হাটলেই চালন্দা গিরিপথ পৌঁছে যাবেন।

কোথায় থাকবেন

চট্টগ্রাম শহরের ষ্টেশন রোড, জেএসসি মোড় এবং আগ্রাবাদ এলাকায় বিভিন্ন মানের আবাসিক হোটেল রয়েছে। এদের মধ্যে হোটেল স্টার পার্ক, হোটেল ডায়মন্ড পার্ক, হোটেল মিসখা, হোটেল হিল টন সিটি, এশিয়ান এসআর হোটেল, হোটেল প্যারামাউন্ট, হোটেল সাফিনা ও হোটেল সিলমন উল্লেখযোগ্য।

খাওয়া দাওয়া

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় এলাকায় ভাতঘর, ঢাকা হোটেল, মওয়ের দোকান সহ বেশকিছু সুলভ মূল্যে খাবার হোটেল ও রেস্টুরেন্ট রয়েছে। চাইলে চট্টগ্রাম শহরে ফিরে এসেও প্রয়োজনীয় খাবার খেতে পারবেন।

প্রয়োজনীয় ভ্রমণ পরামর্শ:

  • ছড়ার পানি ধরে যাওয়ার সময় দুইটি পথ পাবেন। এদের মধ্যে একটি চালন্দায় যাওয়ার পথ এবং অন্যটি সীতাকুণ্ড যাওয়া পথ। তাই সঠিক পথে যাচ্ছেন কিনা এ বেপারে সজাগ থাকুন।
  • দলগতভাবে ভ্রমণ করুন এবং চলাচলের সময় প্রত্যেকে লাঠি ব্যবহার করুন। অনেক উপকার পাবেন।
  • নিজেদের সাথে শুকনো খাবার ও প্রয়োজন মত পানি পরিবহণ করুন।
  • কোন প্রকার ময়লা ফেলে গিরিপথ নোংরা করবেন না।

ফিচার ইমেজ: নাদিম টপসিক্রেট

ম্যাপে চালন্দা গিরিপথ

শেয়ার করুন সবার সাথে

ভ্রমণ গাইড টিম সব সময় চেষ্টা করছে আপনাদের কাছে হালনাগাদ তথ্য উপস্থাপন করতে। যদি কোন তথ্যগত ভুল কিংবা স্থান সম্পর্কে আপনার কোন পরামর্শ থাকে মন্তব্যের ঘরে জানান অথবা আমাদের সাথে যোগাযোগ পাতায় যোগাযোগ করুন।
দৃষ্টি আকর্ষণ : যে কোন পর্যটন স্থান আমাদের সম্পদ, আমাদের দেশের সম্পদ। এইসব স্থানের প্রাকৃতিক কিংবা সৌন্দর্য্যের জন্যে ক্ষতিকর এমন কিছু করা থেকে বিরত থাকুন, অন্যদেরকেও উৎসাহিত করুন। দেশ আমাদের, দেশের সকল কিছুর প্রতি যত্নবান হবার দায়িত্বও আমাদের।
সতর্কতাঃ হোটেল, রিসোর্ট, যানবাহন ভাড়া ও অন্যান্য খরচ সময়ের সাথে পরিবর্তন হয় তাই ভ্রমণ গাইডে প্রকাশিত তথ্য বর্তমানের সাথে মিল না থাকতে পারে। তাই অনুগ্রহ করে আপনি কোথায় ভ্রমণে যাওয়ার আগে বর্তমান ভাড়া ও খরচের তথ্য জেনে পরিকল্পনা করবেন। এছাড়া আপনাদের সুবিধার জন্যে বিভিন্ন মাধ্যম থেকে হোটেল, রিসোর্ট, যানবাহন ও নানা রকম যোগাযোগ এর মোবাইল নাম্বার দেওয়া হয়। এসব নাম্বারে কোনরূপ আর্থিক লেনদেনের আগে যাচাই করার অনুরোধ করা হলো। কোন আর্থিক ক্ষতি বা কোন প্রকার সমস্যা হলে তার জন্যে ভ্রমণ গাইড দায়ী থাকবে না।