জয়পুরহাট জেলা সদর থেকে মাত্র ৪ কিলোমিটার দূরে যমুনা নদীর তীরবর্তী বেল-আমলা গ্রামে বার শিবালয় মন্দির (Baro Shibaloy Temple/12 Sib Temple’s) অবস্থিত। বারো শিবালয় মন্দির নির্মাণের সঠিক ইতিহাস সম্পর্কে জানা না গেলেও মন্দিরের দেয়াল চিত্র, নকশা করা ইট এবং কারুকার্যময় পোড়ামাটির ফলকের ব্যবহার শৈলী দেখে অনুমান করা হয় এটি সেন যুগে নির্মিত একটি স্থাপনা। আর রাজা বল্লাল সেনের শিবের প্রতি বিশেষ দূর্বলতা থাকার কারণে তাকে এই মন্দিরের প্রতিষ্ঠাতা মনে করা হয়। ১২ টি শিব মন্দিরের প্রতিটির অভ্যন্তরে আছে গণেশের চিত্র, নম শিবায় ও শ্রী গণেশায় দেবায় নম, বিভিন্ন দেব-দেবীর কাহিনী চিত্র এবং রামলক্ষণ-সীতা, হনুমান ও মা কালীর প্রতিমা। আর মন্দির আঙ্গিনার মাঝখানে স্থান পেয়েছে একটি নন্দী মূর্তি। তবে বার শিবালয় মন্দিরের ১২টি শৃঙ্গ বা আলয় দেখে আগত ভক্তরা সবচেয়ে বেশি পুলকিত হয়।

এছাড়া বারো শিবালয় মন্দিরের পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া নদীর সৌন্দর্য এই স্থাপত্য নিদর্শনকে দিয়েছে বিশেষ বৈচিত্রতা। প্রতিবছর ফাল্গুন মাসের শিব চতুর্দশীতে বার শিবালয় মন্দিরে দুই দিন ব্যাপী শিবরাত্রি পূজা অনুষ্ঠিত হয়। পূজার পাশাপাশি এখানে মেলা বাহারি পণ্যের মেলা বসে। তখন সারাদেশ থেকে সনাতন ধর্মালম্বীরা যমুনা নদীতে পূন্যস্নান করতে আসেন। শিবরাত্রি পূজা উৎসবকে ঘিরে আয়োজিত ঐতিহ্যবাহী এই মেলা ছাড়াও প্রায় সারা বছরই ধর্ম-বর্ণ নির্বিশেষে ভ্রমণকারীরা বার শিবালয় মন্দির দেখতে আসেন।

কীভাবে যাবেন

জয়পুরহাট (Joypurhat) জেলা সদর থেকে গদন শহর স্টপেজে এসে ভ্যান বা রিক্সা ভাড়া করে সরাসরি বার শিবালয় মন্দির দেখতে যেতে পারবেন।

ঢাকা থেকে জয়পুরহাট : গাবতলি, মহাখালী, আব্দুল্লাহপুর, শ্যামলী এবং কল্যাণপুর থেকে শাহ্‌ ফতেহ আলী পরিবহণ, সেইন্টমার্টিন ট্রাভেলস, শ্যামলী পরিবহন এন আর, এস আর ট্রাভেলস এবং হানিফ সহ বেশ কয়েকটি পরিবহণের বাস সার্ভিস ঢাকা হতে জয়পুরহাটের উদ্দেশ্যে যাত্রা করে। এসি, নন-এসি এসব বাসের ভাড়া ৪০০ টাকা থেকে ৮০০ টাকা পর্যন্ত। এছাড়া ঢাকার কমলাপুর কিংবা বিমানবন্দর রেলওয়ে ষ্টেশন থেকে নীলসাগর, একতা এবং দ্রুতযান এক্সপ্রেসে জয়পুরহাট যেতে পারবেন।

জয়পুরহাট কোথায় থাকবেন

জয়পুরহাট শহরের থানা রোডে হোটেল সৌরভ ইন্টাঃ, হোটেল জাহান আরা ইন্টাঃ, জসিম রেসিডেন্সিয়াল হোটেল, পৃথিবী হোটেল, হোটেল বৈশাখী রেসিডেন্সিয়াল ইত্যাদি ছাড়াও আরো বিভিন্ন মানের আবাসিক হোটেল রয়েছে।

জয়পুরহাট কোথায় খাবেন

জয়পুরহাটে বিভিন্ন মানে চাইনিজ এবং বাংলা খাবারের রেস্টুরেন্ট রয়েছে। এদের মধ্যে ক্যাফে অরেঞ্জ চাইনিজ রেস্টুরেন্ট, বিসমিল্লা হোটেল এন্ড রেস্টুরেন্ট, রুচিটা রেস্টুরেন্ট এন্ড চাইনিজ, মিনা, প্রিন্স রেস্টুরেন্ট ইত্যাদি উল্লেখযোগ্য।

ফিচার ইমেজ : Joypurhat-5900 (G.P.O.)

ম্যাপে বার শিবালয় মন্দির

শেয়ার করুন সবার সাথে

ভ্রমণ গাইড টিম সব সময় চেষ্টা করছে আপনাদের কাছে হালনাগাদ তথ্য উপস্থাপন করতে। যদি কোন তথ্যগত ভুল কিংবা স্থান সম্পর্কে আপনার কোন পরামর্শ থাকে মন্তব্যের ঘরে জানান অথবা আমাদের সাথে যোগাযোগ পাতায় যোগাযোগ করুন।
দৃষ্টি আকর্ষণ : যে কোন পর্যটন স্থান আমাদের সম্পদ, আমাদের দেশের সম্পদ। এইসব স্থানের প্রাকৃতিক কিংবা সৌন্দর্য্যের জন্যে ক্ষতিকর এমন কিছু করা থেকে বিরত থাকুন, অন্যদেরকেও উৎসাহিত করুন। দেশ আমাদের, দেশের সকল কিছুর প্রতি যত্নবান হবার দায়িত্বও আমাদের।
সতর্কতাঃ হোটেল, রিসোর্ট, যানবাহন ভাড়া ও অন্যান্য খরচ সময়ের সাথে পরিবর্তন হয় তাই ভ্রমণ গাইডে প্রকাশিত তথ্য বর্তমানের সাথে মিল না থাকতে পারে। তাই অনুগ্রহ করে আপনি কোথায় ভ্রমণে যাওয়ার আগে বর্তমান ভাড়া ও খরচের তথ্য জেনে পরিকল্পনা করবেন। এছাড়া আপনাদের সুবিধার জন্যে বিভিন্ন মাধ্যম থেকে হোটেল, রিসোর্ট, যানবাহন ও নানা রকম যোগাযোগ এর মোবাইল নাম্বার দেওয়া হয়। এসব নাম্বারে কোনরূপ আর্থিক লেনদেনের আগে যাচাই করার অনুরোধ করা হলো। কোন আর্থিক ক্ষতি বা কোন প্রকার সমস্যা হলে তার জন্যে ভ্রমণ গাইড দায়ী থাকবে না।