ঐতিহ্যের নগরী ঢাকার বয়স বাড়ার সাথে সাথে সমৃদ্ধ হয়েছে এখানকার খাবারের ইতিহাস। বিভিন্ন সময়ে দ্রাবিড়, তুর্কি, পারসীয়, আফগান, পর্তুগিজ এবং ইংরেজ জাতি আগমণের মাধ্যমে এই উপমহাদেশের খাবারের সাথে যুক্ত হয়েছে সেই সব দেশের রান্নার বিভিন্ন অনুষঙ্গ, বৈচিত্রতা, স্বাদ এবং বাহারি পদ। ঢাকা শহরও সেই ধারাবাহিকতা থেকে বাদ যায়নি। ধীরে ধীরে পোলাও, বিরিয়ানি, কালিয়া, কোরমা, শিক-শামি এবং টিক্কা কাবাবের হাত ধরে ঢাকায় প্রসার ঘটে চটপটি, ফুচকা, দইবড়া, পেশোয়ারি কাবাবের।

বর্তমান সময়েও ঢাকাবাসীর খাবার গ্রহণের রুচি ও স্বাদের বৈচিত্রময় পরিবর্তনের যাত্রা চালু আছে। এখন পৃথিবীর অন্যান্য দেশের মত ঢাকাবাসীর খাবারের প্লেটে স্থান দখল করেছে পিৎজা, বার্গার, হটডগ, ফ্রাইড চিকেন এবং দোসার মত বিদেশি খাবার। তবুও পুরান ঢাকার বিরিয়ানি, কাবাব, বাকরখানি এবং মোঘলাই খাবারের খ্যাতি সর্বজন সমাদৃত। ভ্রমণ গাইডের আজকের আয়োজনে চলুন জেনে নেই ঢাকা শহরের বিখ্যাত খাবারের নাম ও প্রাপ্তিস্থান।

মামুন বিরিয়ানি হাউস
প্রসিদ্ধ খাবার: তেহারি, আস্ত মোরগের বল এবং বিরিয়ানি।
প্রাপ্তিস্থান: ৮৩ নাজিমুদ্দিন রোড

আফতাব হোটেল
প্রসিদ্ধ খাবার: বাসমতি চালের ভুনা খিচুড়ি, ইলিশ ও রুই খিচুড়ি।
প্রাপ্তিস্থান: ৮৩ নাজিমুদ্দিন রোড

নিরব হোটেল এন্ড রেস্টুরেন্ট
প্রসিদ্ধ খাবার: মগজ বা ব্রেইন ফ্রাই এবং বিভিন্ন ধরনের ভর্তা-ভাজি।
প্রাপ্তিস্থান: ১১৩/২ নাজিমুদ্দিন রোড

রয়্যাল হোটেল কাচ্চি
প্রসিদ্ধ খাবার: জাফ্রান বাদামের শরবত, চিকেন টিক্কা, লাবাঙ।
প্রাপ্তিস্থান: লালবাগ চৌরাস্তার মোড়

শমসের আলীর ভুনা খিচুড়ি
প্রসিদ্ধ খাবার: ভুনা খিচুড়ি।
প্রাপ্তিস্থান: বংশাল চৌরাস্তা মোড়।

হাজীর বিরিয়ানি
প্রসিদ্ধ খাবার: বিরিয়ানি
প্রাপ্তিস্থান: ৭০ কাজি আলাউদ্দিন রোড, নাজিরা বাজার

হোটেল আল রাজ্জাক
প্রসিদ্ধ খাবার: খাসির গ্লাসি ও কাচ্চি।
প্রাপ্তিস্থান: ৩০ শহীদ নজরুল ইসলাম স্মরণী

কাবাব বন
প্রসিদ্ধ খাবার: কাবাব বন।
প্রাপ্তিস্থান: ৩৪/এ ভাটের মসজিদ সংলগ্ন, লালবাগ

বিউটির লাচ্ছি
প্রসিদ্ধ খাবার: লাচ্ছি ও লেবুর শরবত।
প্রাপ্তিস্থান: ৩০/এ জনসন রোড

কলকাতা কাচ্চি ঘর
প্রসিদ্ধ খাবার: বাসমতি চালের কাচ্চি
প্রাপ্তিস্থান: ১৪ আবুল হাসনাত রোড, সাতরওজা

রহমানের কাবাব
প্রসিদ্ধ খাবার: কাবাব।
প্রাপ্তিস্থান: ২৮ ডিস্টিলারি রোড, গেন্ডারিয়া

কাচ্ছি বিরিয়ানি ভ্রমণ গাইড
ছবি: বিডি সংসার

কাশ্মির কাচ্চি
প্রসিদ্ধ খাবার: কাচ্চি
প্রাপ্তিস্থান: ৩৪/এ পাটুয়াটুলী, ঢাকা।

ঝুনুর পোলাও
প্রসিদ্ধ খাবার: পোলাও
প্রাপ্তিস্থান: ১১ নারিন্দা রোড

সুলতানের চা
প্রসিদ্ধ খাবার: বিট লবণের লাল চা ও গুড়ের চা।
প্রাপ্তিস্থান: বাহাদুর শাহ পার্ক, সদরঘাট

সোনা মিয়ার দই
প্রসিদ্ধ খাবার: টক ও মিষ্টি দই।
প্রাপ্তিস্থান: ৩৩/এ রজনি চৌধুরী রোড, গেন্ডারিয়া

বিউটি বোর্ডিং
প্রসিদ্ধ খাবার: সরষে ইলিশ, বিভিন্ন ধরনের সবজি ও মাছ।
প্রাপ্তিস্থান: ১ শ্রীশ দাস লেন, বাংলাবাজার

কিছুক্ষন রেস্টুরেন্ট
প্রসিদ্ধ খাবার: স্পেশাল স্যুপ, কাটলেট।
প্রাপ্তিস্থান: ডিস্টিলারী রোড, গেন্ডারিয়া

চৌরঙ্গী রেস্টুরেন্ট
প্রসিদ্ধ খাবার: লুচি ডাল, হাফফ্রাই ডিম অমলেট।
প্রাপ্তিস্থান: নর্থব্রুক রোড, বাংলাবাজার

ক্যাফে কর্নার
প্রসিদ্ধ খাবার: ক্রাম্ব চপ।
প্রাপ্তিস্থান: নর্থব্রুক রোড, চৌরঙ্গী, বাংলাবাজার

মোহাম্মদ আলী গ্রীন সুইটমিট
প্রসিদ্ধ খাবার: লুচি, গাজরের হালুয়া, টক ভাজি
প্রাপ্তিস্থান: বিবিসি রোড, ঠাটারীবাজার

ফখরুদ্দিন বাবুচি
প্রসিদ্ধ খাবার: কাচ্চি বিরিয়ানি, বোরহানি ও আলু বোখারার সস

নান্না বিরিয়ানি
প্রসিদ্ধ খাবার: মোরগ-পোলাও
প্রাপ্তিস্থান: বেচারাম দেউরী

ঘরোয়া হোটেল ও হীরাঝিল হোটেল
প্রসিদ্ধ খাবার: ভূনা খিচুড়ী
প্রাপ্তিস্থান: শাপলা চত্বর, মতিঝিল

হোটেল আল-রাজ্জাক
প্রসিদ্ধ খাবার: কাচ্চি গ্লাসি
প্রাপ্তিস্থান: মতিঝিল

তেহারী অন হুইলস
প্রসিদ্ধ খাবার: তেহারী
প্রাপ্তিস্থান: বনানী

গাউছিয়া হোটল
প্রসিদ্ধ খাবার: গ্রিল
প্রাপ্তিস্থান: ঝিগাতলা

হোটেল স্টার
প্রসিদ্ধ খাবার: খাসীর লেকুশ
প্রাপ্তিস্থান: নবাবপুর রোড

পুরি ভ্রমণ গাইড

বুদ্ধুর পুরি
প্রসিদ্ধ খাবার: পুরি
প্রাপ্তিস্থান: ডালপট্টি মোড়, সুত্রাপুর

হোটেল ভিক্টোরী
প্রসিদ্ধ খাবার: ৭০টি আইটেমের বুফে
প্রাপ্তিস্থান: নয়াপল্টন

ভোলা ভাই বিরিয়ানী ও মুক্তা বিরিয়ানী
প্রসিদ্ধ খাবার: গরুর চাপ, খাসীর চাপ এবং ফুল কবুতর।
প্রাপ্তিস্থান: খিঁলগাও

সুনামী রেস্তোরা
প্রসিদ্ধ খাবার: কাচ্চি বিরিয়ানী
প্রাপ্তিস্থান: ঝিগাতলা

হেরিটেজ
প্রসিদ্ধ খাবার: শর্মা
প্রাপ্তিস্থান: হাতিরপুল মোড়

ঢাকা শর্মা হাউজ
প্রসিদ্ধ খাবার: বিফ পাস্তা
প্রাপ্তিস্থান: নিকুঞ্জ

সানমুন হোটেল
প্রসিদ্ধ খাবার: গ্রীল চিকেন
প্রাপ্তিস্থান: মগবাজার

বিহারী ক্যাম্প
প্রসিদ্ধ খাবার: গরু ও খাশির চাপ
প্রাপ্তিস্থান: মোহাম্মদপুর

টাউন হল বাজার
প্রসিদ্ধ খাবার: মান্জারের পুরি
প্রাপ্তিস্থান: মোহাম্মদপুর

প্রিন্স রেস্টুরেন্ট
প্রসিদ্ধ খাবার: কাকড়া ভাজি
প্রাপ্তিস্থান: সোবহানবাগ

ছায়ানীড়
প্রসিদ্ধ খাবার: গ্রিল চিকেন
প্রাপ্তিস্থান: সাইন্সল্যাব

হাজীর বিরিয়ানী
প্রসিদ্ধ খাবার: বিরিয়ানি
প্রাপ্তিস্থান: নাজিরা বাজার

চিড়াঘর
প্রসিদ্ধ খাবার: দই চিড়া
প্রাপ্তিস্থান: বাংলাবাজার

কস্তুরি
প্রসিদ্ধ খাবার: শর্মা
প্রাপ্তিস্থান: মহাখালী

দাওয়াত ই মেজবান
প্রসিদ্ধ খাবার: মেজবানী মাংস
প্রাপ্তিস্থান: ধানমন্ডি

বিসমিল্লাহ হোটেল
প্রসিদ্ধ খাবার: বটি কাবাব
প্রাপ্তিস্থান: নাজিরা বাজার মোড়

ভূতের আড্ডা
প্রসিদ্ধ খাবার: কাকড়া, সিজলিং, স্যুপ

কাবাব ভ্রমণ গাইড
ছবি: Lesya Dolyk

শওকতের কাবাব
প্রসিদ্ধ খাবার: কাবাব
প্রাপ্তিস্থান: মিরপুর-১০

মামার আলুর দম
প্রসিদ্ধ খাবার: আলুর দম
প্রাপ্তিস্থান: সেন্ট ফ্রান্সিস স্কুলের সামনে

বাদশাহ মিয়ার চা
প্রসিদ্ধ খাবার: চা
প্রাপ্তিস্থান: নিমতলী

ইছাপুরা
প্রসিদ্ধ খাবার: কোয়েলের চাপ
প্রাপ্তিস্থান: ৩০০ ফিট

প্রসিদ্ধ খাবার: ঝাল ফুচকা
প্রাপ্তিস্থান: মিরপুর পানির ট্যাঙ্ক

খাজানা
প্রসিদ্ধ খাবার: মাটন দম বিরিয়ানী এবং হাইদ্রাবাদী বিরিয়ানী
প্রাপ্তিস্থান: গুলশান ২

বাংলা রেস্তোরা
প্রসিদ্ধ খাবার: গ্রীল চিকেন
প্রাপ্তিস্থান: উত্তরা

অমূল্য মিষ্টান্ন ভান্ডার
প্রসিদ্ধ খাবার: হালুয়া, পরোটা, সন্দেশ
প্রাপ্তিস্থান: শাঁখারীবাজার

অষ্টব্যঞ্জন
প্রসিদ্ধ খাবার: বিফ খিচুড়ী
প্রাপ্তিস্থান: কাঁটাবন

নোয়াখালী হোটেল
প্রসিদ্ধ খাবার: গরুর কালো ভুনা
প্রাপ্তিস্থান: বিজয়পুর পানির ট্যাংক, পল্টন

গ্রান্ড সুইটস ও উজ্জল হোটেল
প্রসিদ্ধ খাবার: পাউরুটি, গরুর মাংস
প্রাপ্তিস্থান: ওয়ারলেস, মগবাজার

মোহাম্মদী হোটেল
প্রসিদ্ধ খাবার: উটের মাংস
প্রাপ্তিস্থান: নতুন বাজার, শাহজাদপুর, গুলশান

জননী হোটেল
প্রসিদ্ধ খাবার: পরোটার সাথে ঝিলাপী
প্রাপ্তিস্থান: কোকাকোলা মোড়, ভাটারা

হোটেল রিজেন্সির পিছনে
প্রসিদ্ধ খাবার: মাল্টার স্পেশাল চা
প্রাপ্তিস্থান: নিকুঞ্জ খিলখেত

হোটেল ব্যাচেলর
প্রসিদ্ধ খাবার: সবজি পুরি
প্রাপ্তিস্থান: ৩ নং রোড, নিকুঞ্জ ২

হোটেল তিন বন্ধু
প্রসিদ্ধ খাবার: চিকেন গ্রীল
প্রাপ্তিস্থান: নতুনবাজার

স্বাদ
প্রসিদ্ধ খাবার: তেহারী
প্রাপ্তিস্থান: লালমাটিয়া

ভোজনরসিক হলে সময় করে আপনার পছন্দমত খাবার গুলো ঢাকায় ঘুরে খেয়ে স্বাদ নিতে পারেন। বিখ্যাত এই খাবার গুলো কোন খাবারটি আপনি খেয়েছেন? কেমন লেগেছিলো সেই অভিজ্ঞতা জানাতে পারেন মন্তব্য করে।

তথ্যসূত্র : বিভিন্ন ফুড ব্লগ ও রিভিউ থেকে

শেয়ার করুন সবার সাথে

ভ্রমণ গাইড টিম সব সময় চেষ্টা করছে আপনাদের কাছে হালনাগাদ তথ্য উপস্থাপন করতে। যদি কোন তথ্যগত ভুল কিংবা স্থান সম্পর্কে আপনার কোন পরামর্শ থাকে মন্তব্যের ঘরে জানান অথবা আমাদের সাথে যোগাযোগ পাতায় যোগাযোগ করুন।
দৃষ্টি আকর্ষণ : যে কোন পর্যটন স্থান আমাদের সম্পদ, আমাদের দেশের সম্পদ। এইসব স্থানের প্রাকৃতিক কিংবা সৌন্দর্য্যের জন্যে ক্ষতিকর এমন কিছু করা থেকে বিরত থাকুন, অন্যদেরকেও উৎসাহিত করুন। দেশ আমাদের, দেশের সকল কিছুর প্রতি যত্নবান হবার দায়িত্বও আমাদের।
সতর্কতাঃ হোটেল, রিসোর্ট, যানবাহন ভাড়া ও অন্যান্য খরচ সময়ের সাথে পরিবর্তন হয় তাই ভ্রমণ গাইডে প্রকাশিত তথ্য বর্তমানের সাথে মিল না থাকতে পারে। তাই অনুগ্রহ করে আপনি কোথায় ভ্রমণে যাওয়ার আগে বর্তমান ভাড়া ও খরচের তথ্য জেনে পরিকল্পনা করবেন। এছাড়া আপনাদের সুবিধার জন্যে বিভিন্ন মাধ্যম থেকে হোটেল, রিসোর্ট, যানবাহন ও নানা রকম যোগাযোগ এর মোবাইল নাম্বার দেওয়া হয়। এসব নাম্বারে কোনরূপ আর্থিক লেনদেনের আগে যাচাই করার অনুরোধ করা হলো। কোন আর্থিক ক্ষতি বা কোন প্রকার সমস্যা হলে তার জন্যে ভ্রমণ গাইড দায়ী থাকবে না।