ভ্রমণ পিপাসুদের জন্যে ঈদ মানে আসলেই খুশীর দিন। কারণ প্রতি ঈদেই দেখা মিলে বেশ কয়েক দিনের ছুটি। আর ঈদের এই ছুটির দিন গুলো দেশ বিদেশ ঘুরে বেড়ানোর জন্যে ভালই কাজে লাগে। চাঁদ দেখা সাপেক্ষে এইবছর ২০১৯ সালের ১২ই আগষ্ট ঈদুল আজহা অনুষ্ঠিত হতে পারে। আর তাই যদি হয় তাহলে চাকুরিজীবীদের জন্যে আছে ৯ দিনের লম্বা ঈদের ছুটির সুখবর।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের ইন্টারন্যাশনাল অ্যাস্ট্রোনমিক্যাল সেন্টার (আইএসি) ঘোষণা দিয়েছে, আগামী ১লা আগস্ট আরবি মাস জিলহজের নতুন চাঁদ দেখা যেতে পারে এবং ১১ আগস্ট মধ্যপ্রাচ্যের বিভিন্ন দেশে ঈদুল আজহা উদযাপন হতে পারে। যদি তাই হয় তাহলে বাংলাদেশে সাম্ভাব্য ঈদ উদযাপন হবে ১২ই আগষ্ট। সাধারণত মধ্যপ্রাচ্যের একদিন পরেই এই দেশে ঈদ উদযাপন হয়ে থাকে।

কিভাবে মিলবে ৯ দিনের ছুটি?

যদি ১২ তারিখ ঈদ হয় তাহলে একদিন ছুটি নিতে পারলে টানা ৯ দিনের ছুটি কাটানো সম্ভব হবে এই কোরবানি ঈদে। ১২ তারিখ ঈদ হলে ১১, ১২ এবং ১৩ তারিখ ঈদের বন্ধ থাকবে। আর ৯ তারিখ শুক্রবার এবং ১০ তারিখ শনিবার সাপ্তাহিক ছুটি। ১৫ তারিখ হচ্ছে জাতীয় শোক দিবসের ছুটি। ১৬ তারিখ শুক্রবার এবং ১৭ তারিখ শনিবার সাপ্তাহিক ছুটি। তাহলে মাঝের ১৪ তারিখ সরকারী কর্মজীবীরা যদি ছুটি নিতে পারে তাহলে আগষ্টের ৯ তারিখ থেকে ১৭ তারিখ পযর্ন্ত ঈদের ছুটি কাটানো যাবে।

তারিখবারছুটির কারণ
০৯ আগষ্ট শুক্রবার সাপ্তাহিক বন্ধ
১০ আগষ্ট শনিবার সাপ্তাহিক বন্ধ
১১ আগষ্ট রবিবার ঈদুল আজহার ছুটি
১২ আগষ্ট সোমবার ঈদুল আজহার ছুটি
১৩ আগষ্ট মঙ্গলবার ঈদুল আজহার ছুটি
১৪ আগষ্ট বুধবার এই একটি দিন ছুটি নিতে হবে
১৫ আগষ্ট বৃহঃস্পতিবার জাতীয় শোক দিবস
১৬ আগষ্ট শুক্রবার সাপ্তাহিক বন্ধ
১৭ আগষ্ট শনিবার সাপ্তাহিক বন্ধ

লম্বা ছুটিতে সবারই কোথাও না কোথাও ঘুরতে যাবার পরিকল্পনা থাকে। কারো ভালো লাগে পাহাড় আবার কারো সমুদ্র। আর ঈদের লম্বা ছুটিতে সেই ঘুরে বেড়ানোর সুযোগটা নিশ্চয়ই হাতছাড়া করতে চান না। সময় সুযোগ আর অবস্থা হিসেবে বেছে নিতে পারে আপনার পছন্দের বেড়ানোর জায়গা। তা হতে পারে দেশের ভিতরে বা দেশের বাইরে। ঈদের এই লম্বা ছুটিতে কোথায় বেড়াতে পারেন তার ১০১ টা আইডিয়া জেনে নিতে পারেন আমাদের ঈদ ভ্রমণ গাইড থেকে।

ভ্রমণ গাইড টিম সব সময় চেষ্টা করছে আপনাদের কাছে হালনাগাদ তথ্য উপস্থাপন করতে। যদি কোন তথ্যগত ভুল কিংবা স্থান সম্পর্কে আপনার কোন পরামর্শ থাকে মন্তব্যের ঘরে জানান অথবা আমাদের সাথে যোগাযোগ পাতায় যোগাযোগ করুন।
দৃষ্টি আকর্ষণ : যে কোন পর্যটন স্থান আমাদের সম্পদ, আমাদের দেশের সম্পদ। এইসব স্থানের প্রাকৃতিক কিংবা সৌন্দর্য্যের জন্যে ক্ষতিকর এমন কিছু করা থেকে বিরত থাকুন, অন্যদেরকেও উৎসাহিত করুন। দেশ আমাদের, দেশের সকল কিছুর প্রতি যত্নবান হবার দায়িত্বও আমাদের।
সতর্কতাঃ হোটেল, রিসোর্ট, যানবাহন ভাড়া ও অন্যান্য খরচ সময়ের সাথে পরিবর্তন হয় তাই ভ্রমণ গাইডে প্রকাশিত তথ্য বর্তমানের সাথে মিল না থাকতে পারে। তাই অনুগ্রহ করে আপনি কোথায় ভ্রমণে যাওয়ার আগে বর্তমান ভাড়া ও খরচের তথ্য জেনে পরিকল্পনা করবেন। এছাড়া আপনাদের সুবিধার জন্যে বিভিন্ন মাধ্যম থেকে হোটেল, রিসোর্ট, যানবাহন ও নানা রকম যোগাযোগ এর মোবাইল নাম্বার দেওয়া হয়। এসব নাম্বারে কোনরূপ আর্থিক লেনদেনের আগে যাচাই করার অনুরোধ করা হলো। কোন আর্থিক ক্ষতি বা কোন প্রকার সমস্যা হলে তার জন্যে ভ্রমণ গাইড দায়ী থাকবে না।