বাংলাদেশ রেলওয়ে ঈদুল আজহা উপলক্ষে আগামী ২৯ জুলাই থেকে অগ্রিম টিকেট বিক্রি শুরু করবে। বিক্রি চলবে ২রা আগষ্ট পর্যন্ত। ঈদের সম্ভাব্য তারিখ ধরা হয়েছে ১২ই আগষ্ট। সে অনুযায়ী অন্যান্য সকল বিষয় নির্ধারণ করা হয়েছে। ২৯ জুলাই থেকে ২ আগষ্ট পর্যন্ত প্রতিদিন সকাল ৮টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত টিকিট বিক্রি চলবে। ফিরতি টিকেট পাওয়া যাবে ৫ থেকে ৯ আগষ্ট। অর্ধেক টিকেট কাউন্টারে বিক্রি হবে এবং অর্ধেক বিক্রি হবে অনলাইনে।

একজন যাত্রী জাতীয় পরিচয়পত্র প্রদর্শন করে একসঙ্গে সর্বোচ্চ ৪টি টিকিট কিনতে পারবেন। ঈদের অগ্রিম বিক্রিত টিকেট ফেরত দেওয়া যাবেনা। মোবাইলে অ্যাপের মাধ্যমে টিকেট বিক্রি শুরু হবে সকাল ৬টায়। আর সকল কাউন্টার থেকে সকল ট্রেনের টিকিট কাটার সুবিধা থাকছে না। দেশের একেক অঞ্চলের ট্রেনের টিকেটের জন্যে একেক জায়গা থেকে টিকেট কাটতে হবে।

কোন গন্তব্যের টিকিট কোথায় পাবেন

কমলাপুর স্টেশন : যমুনা সেতু হয়ে গমনকারী সমগ্র পশ্চিমাঞ্চলগামী ট্রেনের টিকিট পাবেন।
বিমানবন্দর : চট্টগ্রাম ও নোয়াখালীগামী সকল আন্তঃনগর ট্রেনের টিকিট।
বনানী : নেত্রকোনাগামী মোহনগঞ্জ ও হাওড় এক্সপ্রেস ট্রেনের টিকিট কাটা যাবে।
তেজগাঁও : হতে ময়মনসিংহ ও জামালপুরগামী সকল আন্তঃনগর ট্রেনের টিকিট ক্রয় করা যাবে।
ফুলবাড়িয়া : হতে সিলেট ও কিশোরগঞ্জগামী আন্তঃনগর ট্রেনের ঈদের অগ্রিম টিকিট বিক্রি করা হবে।

কত তারিখের টিকিট কবে পাবেন

  • ২৯ জুলাই দেওয়া হবে ৭ই আগষ্টের টিকিট
  • ৩০ জুলাই হবে ৮ই আগষ্টের টিকিট
  • ৩১ জুলাই দেওয়া হবে ৯ই আগষ্টের টিকেট
  • ১ আগষ্ট দেওয়া হবে ১০ই আগষ্টের টিকেট
  • ২ আগষ্ট দেওয়া হবে ১১ই আগষ্টের টিকেট

আরও পড়ুন: অনলাইনে ট্রেনের টিকেট কাটবেন যেভাবে

ফিরতি টিকিট

ঈদ শেষে ফিরতি টিকিট বিক্রি হবে ৫ থেকে ৯ আগষ্ট।

  • ৫ আগস্ট বিক্রি হবে ১৪ আগস্টের টিকেট
  • ৬ আগস্ট বিক্রি হবে ১৫ আগস্টের টিকেট
  • ৭ আগস্ট বিক্রি হবে ১৬ আগস্টের টিকেট
  • ৮ আগস্ট বিক্রি হবে ১৭ আগস্টের টিকেট
  • ৯ আগস্ট বিক্রি হবে ১৮ আগস্টের টিকেট

ট্রেন সংখ্যা ও বিশেষ ট্রেন

ঈদ উপলক্ষে অন্যবারের মতো সারাদেশে ৮ জোড়া স্পেশাল ট্রেন দিবে বাংলাদেশ রেলওয়ে। এর মধ্যে ঈদের আগে ৮ আগস্ট থেকে ১১ আগস্ট পর্যন্ত বিশেষ ট্রেন চলবে। আর ঈদের পর দিন ১৩ আগস্ট থেকে ১৯ আগস্ট পর্যন্ত চলবে বিশেষ ট্রেন। শিডিউল ট্রেনের মোট আসন সংখ্যা ২৬ হাজার ৫০০। আর চারটি স্পেশাল ট্রেনে তিন হাজার আসন রয়েছে। এ ছাড়া ঈদ উপলক্ষে এক হাজার ৪৩৭টি কোচ অন্তর্ভুক্ত করা হবে।

শেয়ার করুন সবার সাথে

ভ্রমণ গাইড টিম সব সময় চেষ্টা করছে আপনাদের কাছে হালনাগাদ তথ্য উপস্থাপন করতে। যদি কোন তথ্যগত ভুল কিংবা স্থান সম্পর্কে আপনার কোন পরামর্শ থাকে মন্তব্যের ঘরে জানান অথবা আমাদের সাথে যোগাযোগ পাতায় যোগাযোগ করুন।
দৃষ্টি আকর্ষণ : যে কোন পর্যটন স্থান আমাদের সম্পদ, আমাদের দেশের সম্পদ। এইসব স্থানের প্রাকৃতিক কিংবা সৌন্দর্য্যের জন্যে ক্ষতিকর এমন কিছু করা থেকে বিরত থাকুন, অন্যদেরকেও উৎসাহিত করুন। দেশ আমাদের, দেশের সকল কিছুর প্রতি যত্নবান হবার দায়িত্বও আমাদের।
সতর্কতাঃ হোটেল, রিসোর্ট, যানবাহন ভাড়া ও অন্যান্য খরচ সময়ের সাথে পরিবর্তন হয় তাই ভ্রমণ গাইডে প্রকাশিত তথ্য বর্তমানের সাথে মিল না থাকতে পারে। তাই অনুগ্রহ করে আপনি কোথায় ভ্রমণে যাওয়ার আগে বর্তমান ভাড়া ও খরচের তথ্য জেনে পরিকল্পনা করবেন। এছাড়া আপনাদের সুবিধার জন্যে বিভিন্ন মাধ্যম থেকে হোটেল, রিসোর্ট, যানবাহন ও নানা রকম যোগাযোগ এর মোবাইল নাম্বার দেওয়া হয়। এসব নাম্বারে কোনরূপ আর্থিক লেনদেনের আগে যাচাই করার অনুরোধ করা হলো। কোন আর্থিক ক্ষতি বা কোন প্রকার সমস্যা হলে তার জন্যে ভ্রমণ গাইড দায়ী থাকবে না।